December 15, 2018

যশোরে পাগলা কুকুরের কামড়ে আহত ২০

মহসিন মিলন,বেনাপোল প্রতিনিধিঃ  যশোরের চৌগাছা পৌর এলাকায় কুকরের কামড়ে ২০ জন আহত হযেছেন। আতঙ্ক সৃষ্টিকারী পাগলা কুকুরটি গতরাতে মেরে ফেলা হয়েছে। রোববার বিকেলে পৌরসভায় আহতরা কুকুরে কামড়ানো ওষুধ (ভ্যাকসিন) নিতে আসে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, হঠাৎ করেই চৌগাছা পৌর এলাকাতে একটি সাদা কুকুরের আবির্ভাব ঘটে। দেখতে রোগাক্রান্ত এই কুকুরটি একা চলাফেরা করতে থাকে। চলার পথে আকস্মিকভাবে কাউকে কামড় দিয়েই সেখান থেকে পালিয়ে যায়। রবিবার  সকালে পৌর এলাকার ২ ও ৪ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন জায়গায় এই কুকুরের কামড়ে অন্তত ১০ জন জন আহত হয়।

একইদিন রাতে পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডে ওই কুকুরের কামড়ে আরও ৮ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন-পশ্চিম কারিগরপাড়ার আবুল কালাম আজাদের ছেলে ইজাজ আহমেদ, সন্নাসীর ছেলে বিনোদ, সোহেল রানার ছেলে রাজা মিয়া, মালোপাড়ার গোলাম শেখের ছেলে নুরুল বিশ্বাস, কারিগরপাড়ার ইউসুফ আলীর ছেলে রাহাত আলী, পশ্চিম কারিগরপাড়ার জাকির হোসেনের স্ত্রী পারুল বেগম, মৃত হাজের আলীর রুহুল আমিন, হারেজ গাজীর ছেলে আব্দুস সামাদ ও পথচারী আশানুর রহমান।

একই কুকুর উপজেলা পরিষদের সামনে সড়কে দাঁড়িয়া থাকা সবুজ নামে একজনকে কামড় দিয়ে পায়ের মাংশ ছিঁড়ে নেয়। একইদিন সকালে প্রতিভা এডাস স্কুলের শিার্থী সাদিয়া ইয়াসমিন স্মৃতিকে ওই কুকুরটি কামড়িয়ে গুরুতর জখম করে। এছাড়া আরও কয়েকজনসহ বেশ কিছু গবাদি পশুও কুকুরের কামড়ের শিকার হয়েছে বলে একাধিক সূত্র জানিয়েছে। এ অবস্থায় এলাকাবাসীর মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
এদিকে রাতে ৮ নং ওয়ার্ডের ছুটিপুর বাসস্ট্যান্ডর কাছে লোকজন ওই পাগলা কুকুরটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলে। পৌরসভার স্বাস্থ্য সহকারী আবু সাঈদ রাজু জানান, ‘একসাথে এতো জনকে কুকুরে কামড়ানোর রেকর্ড নেই। আমরা সকল আহত মানুষকে চিকিৎসা সেবা দিতে পেরেছি।’

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts