September 23, 2018

যতদিন লাল-সবুজের পতাকা থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকবেন—-বিশ্বনাথে লুৎফুর রহমান


IMG_20170816_202714মো. আবুল কাশেম, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র জন্ম হয়ে ছিল বলেই আজ আমরা স্বাধীন দেশে বসবাস করতে পারছি। মাতৃভাষায় কথা বলার অধিকার পেয়েছি। বঙ্গবন্ধুর মৃত্যু নাই, তিনি চির অমর। বিশ্বের বুকে যতদিন লাল-সবুজের পতাকা থাকবে, ততদিন বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকবেন বাঙারীদের অন্তরে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বাধীন সরকার বিদেশে পালিয়ে থাকা বঙ্গবন্ধুর খুনীদের দেশে এনে রায় কার্যকর করবে।

তিনি বুধবার বিকেলে সিলেটের বিশ্বনাথে ‘জাতীয় শোক দিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথাগুলো বলেন। সভার শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন দৌলতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আরিফ উল্লাহ সিতাব ও গীতাপাঠ করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক জয়ন্ত আচার্য্য।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র জন্ম হয়ে ছিল বলেই বিশ্বের বুকে ‘বাংলাদেশ’ নামক একটি স্বাধীন রাষ্ট্রের জন্ম হয়। ৭১’র পরাজিত হওয়ার প্রতিশোধ নিতে ঘাতক-দালালের দল দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্রে স্বপরিবারের বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে ছিল। দেশবাসীর রায় নিয়ে বঙ্গবন্ধু তনয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বাধীন সরকার বঙ্গবন্ধুর সেই ঘাতকদের বিচারের আওতায় এনে রায় কার্যকর করছে।

তিনি আরো বলেন, বিগত সময়ে দেশ ও জাতির উন্নয়নের চেয়ে বিএনপি-জামাত-জাতীয় পার্টি জনগণের সম্পদ লুটপাঠ করে খেয়েছে। আর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের আমলে দেশ রয়েছে উন্নয়নের মহাসড়কে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বেই বিনির্মিত হয়ে জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা। কোন অপশক্তিই এদেশে আওয়ামী লীগকে কোন দিন দূর্বল করতে পারেনি, পারবেও না।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পংকি খান’র সভাপতিত্বে এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক আমির আলী চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মকদ্দছ আলীর যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহ ফরিদ আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ মোশাহিদ আলী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা বেগম নাজনীন হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি সুহেল আহমদ মুন্না।

বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি শাহ আসাদুজ্জামান আসাদ, সমছু মিয়া, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ ফয়েজ আহমদ সেবুল, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি ছুরাব আলী, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাবেক সভাপতি সাধন চন্দ্র দাশ, জেলা যুবলীগ নেতা শেখ মোঃ আজাদ, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলতাব হোসেন, সদস্য নিজাম উদ্দিন, জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মোসাদ্দিক হোসেন সাজুল, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সম্পাদক আতিকুর রহমান আতিক, দশঘর ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শীতল বৈদ্য, সহ সভাপতি রেদুয়ানুল করিম মাছুম, বিশ্বনাথ ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মিয়াদ আহমদ।

Related posts