September 25, 2018

মৌলবাদিদের মাঠে নামালেন সেলিম ওসমানঃ জুনায়েদ সাকি

রফিকুল ইসলাম রফিক                   
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  নিজের পক্ষে এবার মৌলবাদিদের নামিয়েছেন সেলিম ওসমান। বুধবার সেলিম ওসমানের পক্ষে নগরীতে মানববন্ধন ও মিছিল করেছে তেহরিকে খতমে নবুয়্যাত নামের একটি সংগঠন। মানববন্ধন চলাকালে তারা বলেন, যারা সেলিম ওসমানের বিরোধীতা করছে তাদের চামড়া তুলে নেয়া হবে। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের নারায়ণগঞ্জের সভাপতি বলেছেন, সেলিম ওসমান নিজেকে রক্ষা করতে সাম্প্রদায়িক উস্কানি দিচ্ছেন। তার পক্ষে সংবাদ সম্মেলন করতে আসা ব্যাবসায়ি নেতারা সাংবাদিক ও সংবাদ সম্পর্কে বিরুপ মন্তব্য করে তোপের মুখে পড়েন। শিক্ষক লাঞ্ছনার অভিযোগে এমপি সেলিম ওসমানকে গ্রেফতার ও বিচারের দাবী জানিয়েছে গনসংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকিসহ বিভিন্ন সংগঠন। ঘটনা তদন্তে কাজ শুরু করেছে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের তদন্ত কমিটি। শিক্ষক লাঞ্ছনার প্রতিবাদে সমাবেশ করার সময় বাধা দেয়ার চেষ্টা করে পুলিশ।

বুধবার বেলা সাড়ে তিনটায় এমপি সেলিম ওসমানের পক্ষে চাষাঢ়াস্থ নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানববন্ধন করে তেহরিকে খতমে নবুয়ত নামের একটি সংগঠন। তাদের ব্যানারে লেখা ছিলো ‘আল্লাহ , রাসুল ও ইসলাম সম্পর্কে কটুক্তিকারি শ্যামল কান্তি ভক্ত ও তার সহযোগি এবং সমর্থকদের ফাসির দাবীতে মানববন্ধন।’ ‘ঈমান রক্ষার সকল কাজে, মুসলমান আছে তোমার কাছে’- সহ সেলিম ওসমানের পক্ষে বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড বহন করে তারা। এসময় বক্তব্য রাখেন, তেহরিকে খতমে নবুয়তের আমীর সাইয়েদ মুফতি এনায়েত উল্লাহ আব্বাসী, সাকিম আলি জামে মসজিদের খতিব তামিম বিল্লাহ, সংগঠনের মহাসচিব মাসুদুর রহমান বিক্রমপুরি। বক্তব্যে সাইয়েদ মুফতি এনায়েত উল্লাহ আব্বাসী বলেন, মুক্তচিন্তার দোহাই দিয়ে কিছু কিছু সাংবাদিক টিভিতে, পত্রিকায়, ইন্টারনেটে যা কিছু তাই লিখে যাচ্ছে বলে যাচ্ছে।

এসব হবে না। সাম্প্রদায়িকতার উস্কানিদাতা ঐ শিক্ষকের মৃত্যুদন্ড কার্যকর দেখতে চাই। শুধু তাই নয়, তার এ বক্তব্য রাষ্ট্রদোহিতার শামিল। যারা সেলিম ওসমানের বিপক্ষ নিয়েছেন তারা নাস্তিক। সেদিন ঐ শিক্ষককে লঘু শাস্তি দিয়ে মুসলমানদের কলিজা প্রশমিত করেছেন সেলিম ওসমান। এরপরেও যারা সেলিম ওসমানের বিরোধীতা করছেন তাদের পিঠের চামড়া তুলে নেবে তৌহিদি জনতা। ঐ হিন্দু শিক্ষককে রক্ষা করার জন্য যদি কোন ম  হয় সে ম  আমরা ভেঙ্গে দেবো। তিনি সেলিম ওসমানকে নিজের অবস্থান শক্ত করার দাবী জানান।
এরপর তারা একটি মিছিল নিয়ে শহর প্রদক্ষীন করেন।

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের নারায়ণগঞ্জের সভাপতি বলেছেন, সেলিম ওসমান নিজেকে রক্ষা করতে সাম্প্রদায়িক উস্কানি দিচ্ছেন। তিনি মাঠে মৌলবাদিদের নামিয়েছেন। তারা মুখে প্রগতিশীলতার কথা বললেও তলে তলে তারা সব সময়ই মৌলবাদিদের সাথে আঁতাত করে চলেন। এর আগেও হেফাজতের আন্দোলনের সময় নারায়ণগঞ্জ রাইফেল ক্লাব থেকে সেলিম ওসমান নানা ফলমুল পাঠিয়েছিলেন। মিশনপাড়ার বাগে জান্নাত জামে মসজিদে শামীম ওসমান হেফাজতের সাথে বৈঠক করেন। পরে এখান থেকে হেফাজতকে বিড়িয়ানি পাঠানো হয়। এবার তাদের আসল চেহারা সামনে চলে এসেছে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/১৮ মে ২০১৬

Related posts