January 16, 2019

মোবাইল-আইপ্যাড ১০ হাজারে বিক্রি করে রুবেল

ঢাকাঃ চুরি করা মোবাইল ও আইপ্যাড বসুন্ধরা শপিংমলের আইটাচ দোকানের কর্মচারী শাওনের কাছে ১০ হাজার টাকায় বিক্রি করেছিল রুবেল। চুরি করা মোবাইল ও আইপ্যাড বিক্রি করার পরে আরো কিছু টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিল শাওন।

আজ বুধবার বিকেলে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন।

পুলিশের এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা বলেন, গোয়েন্দা বিভাগ ও পুলিশ সদর দপ্তর কাজ করেছে। গত দুইদিনে বেশ কয়েকজনকে সনাক্ত করা হয়েছিল। পরে দেখা গেছে তার মত চেহারা নয়। পরে চূড়ান্তভাবে পর্যালোচনা করে ওই ব্যক্তিদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। চুরি যাওয়া তিনটি আইপ্যাড ও একটি মোবাইল রুবেল চুরি করে শাওনের কাছে বিক্রি করেছিল। রুবেল ওই দোকানে আরো চারবার চারটি ফোন বিক্রি করেছে। তিনটি আইপ্যাড ও একটি মোবাল বিক্রির জন্য ১০ হাজার টাকা অগ্রিম দেওয়া হয়েছিল। শাওন বসুন্ধরার আইটাচ দোকানেই চাকরি করে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আবদুল বাতেন বলেন, বসুন্ধরা শপিংমলের কোন কোন দোকানে চুরি করা মোবাইল কেনা-বেচা করে তা যাচাই বাছাই করা হচ্ছে। সব দোকান বন্ধ করে দিলে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে, এই বিষয়টি মাথায় রেখে তদন্ত কাজ করতে হবে। নেদারল্যান্ডের রাষ্টদূতের আইনি প্রক্রিয়া শেষে প্রকৃত মালিকের কাছে ফেরত দেওয়া হবে।

গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার বলেন, রুবেল দেড় বছর আগে খালাতো বোনকে বিয়ে করেছে, তার স্ত্রী অন্ত:সত্তা। গ্রেপ্তারকৃত রুবেলের বাড়ি বরিশাল জেলার মেহেন্দীগঞ্জে।

আজ বুধবার সকালে রাজধানী থেকে নেদারল্যান্ডের (ডাস) রাষ্ট্রদূত লিওনি মার্গারেথা কুয়েলিনারির ব্যাগ চুরির ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- রুবেল (২০) ও শাওন (২০)। এ সময়ে তাদের কাছ থেকে ডাচ রাষ্ট্রদূতের হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ ও মূল্যবান জিনিসপত্র উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তারকৃত রুবেলের দেওয়া তথ্য মতে বসুন্ধরা শপিং মলের লেভেল পাঁচের বি ব্লকের ৪৫ নম্বর দোকানের আইটাচ দোকান থেকে শাওনকে গ্রেপ্তার করা হয়। শাওন এই দোকানের কর্মচারী। রুবেল এই দোকানে চারবার চুরি করে মোবাইল ফোন বিক্রি করেছিল।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উত্তর বিভাগের উপ-কমিশনার শেখ নাজমুল আলম, দক্ষিণ বিভাগের উপ-কমিশনার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ, গণমাধ্যম বিভাগের উপ-কমিশনার মো. মাসুদুর রহমান এবং গণমাধ্যম বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী।

প্রসঙ্গত গত ২১ নভেম্বর গণমাধ্যম বিভাগের উপ-কমিশনার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনিষ্টিটিউটের প্রধান অতিথি হিসেবে একটি অনুষ্ঠানে যোগদান করেন। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে তার ব্যবহৃত ব্যাগটি চেয়ারে রেখে তিনি মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করতে যান। এই সময় ব্যাগটি চুরি হয়ে যায়। এ ঘটনায় শাহবাগ থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Related posts