September 25, 2018

মেয়েরা চুড়ি ও নাকফুল না পরলে স্বামীর আয়ু কমে যায়?

cori

প্রশ্নে উল্লিখিত ধারণাটি ভ্রান্ত, কুসংস্কার ও আল্লাহ তায়ালার কালামে পাকের বিপরীত। কারণ আল্লাহ তায়ালা সমস্ত মানুষের হায়াত নির্দিষ্ট করে রেখেছেন। সে সময়ের পূর্বে বা পরে কারো মৃত্যু হবে না। তাই ঐ সমস্ত ভ্রান্ত ধারণা পরিত্যাগ করা অপরিহার্য।

শ্ন : আমাদের সমাজে একটি প্রথার প্রচলন রয়েছে যে, মেয়েদের জন্য হাতে চুড়ি ও নাকে নাক ফুল পড়া বাধ্যতামূলক। হাতে চুড়ি ও নাকে নাক ফুল না পরলে স্বামীর হায়াত কমে যায়,এমন বিশ্বাস অনেকের। আমার প্রশ্ন হলো, মেয়েরা কানে ও নাকে কি ছিদ্র করে গহনা পরতে পারবে? আর উপরের ধারণাগুলো কী সঠিক, নাকি কুসংস্কার?

উত্তর : ফিক্বাহ শাস্ত্রের নির্ভরযোগ্য কিতাবাদি অধ্যয়নে একথাই প্রমাণিত হয় যে, মেয়েরা কান ও নাক ছিদ্র করে গহনা পরতে পারবে। কেননা কানে গহনা পরার রীতি নবী করীম (সা.) জীবিত থাকা অবস্থায়ও ছিল, তথাপি তিনি এটি নিষেধ করেননি। প্রশ্নে উল্লিখিত ধারণাটি ভ্রান্ত, কুসংস্কার ও আল্লাহ তায়ালার কালামে পাকের বিপরীত। কারণ আল্লাহ তায়ালা সমস্ত মানুষের হায়াত নির্দিষ্ট করে রেখেছেন। সে সময়ের পূর্বে বা পরে কারো মৃত্যু হবে না। তাই ঐ সমস্ত ভ্রান্ত ধারণা পরিত্যাগ করা অপরিহার্য।

[আদ-দুররুল মুখতার মাআ শামী- ৯/৬০২, ফাতওয়া হিন্দিয়া- ৫/৩৫৭,আল-বাহরুর রায়েক- ৯/৩৭৫, আহসানুল ফাতওয়া- ৮/১৯২, ফাতওয়া মাহমুদিয়া- ২৮/৩৫]

Related posts