September 21, 2018

‘মুসলিমদের সম্পর্কে মোদি-ট্রাম্প একই সুরে কথা বলছেন’

দিল্লিঃ দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় (জেএনইউ)-এর স্টুডেন্ট ইউনিয়নের সভাপতি কানহাইয়া কুমার অভিযোগ করেছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প মুসলিমদের সম্পর্কে একই সুরে কথা বলছেন।

অল ইন্ডিয়া ইয়ুথ ফেডারেশনের নেতা কানহাইয়া কুমার সোমবার কোঝিকোড়ে এআইএসএফ-এর তিন দিনব্যাপী জাতীয় সাধারণ পরিষদের সভার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি ওই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘আরএসএসের ফ্যাসিস্ট মুখপাত্র মুসলিম বিরোধী রাজনীতি প্রচার করছেন।’

কানহাইয়া বলেন, ‘আমেরিকাতে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলছেন মুসলিম এবং কালোদের বেরিয়ে যাওয়া উচিত। ভারতে মোদির নেতৃত্বও একই লাইনে মুসলিম, দলিত এবং অন্য সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে কথা বলছেন।’

‘আরএসএস এবং বিজেপি গরুর নামে জনগণকে শাস্তি দিচ্ছে এবং মানুষদের বিভক্ত করতে সাম্প্রদায়িক অনুভূতিকে সমুজ্জ্বল করে তুলছে’ বলেও কানহাইয়া মন্তব্য করেন।

তিনি ভারতের কেরালা রাজ্যকে সোমালিয়ার সঙ্গে তুলনা করার জন্যও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা করেছেন।

গত মাসে কানহাইয়া কুমার বিহারের বেগুসরাইয়ে এক অনুষ্ঠান উপলক্ষে যেসব জায়গায় তিনি গিয়েছিলেন সেসব জায়গায় গঙ্গার পানি ছিটিয়ে দেয় আরএসএস তথা বিজেপি’র ছাত্র শাখা এবিভিপি কর্মীরা। এমনকি সেখানকার শহরে তিনি যে মহান ব্যক্তির মূর্তিতে মালা দিয়েছিলেন তাও গঙ্গার পানি দিয়ে ধুয়ে তথাকথিত শুদ্ধ করার চেষ্টা করে ওই কর্মীরা।

তাদের দাবি, কানহাইয়ার আগমনে বেগুসরাইয়ের মাটি ‘অপবিত্র’ হয়ে গেছে।

যদিও এআইএসএফ রাজ্য নেত্রী অমৃতা কুমারী মন্তব্য করেন, ‘এ ধরণের তৎপরতায় অসুস্থ মানসিকতা প্রকাশ পেয়েছে। এটা সেই বর্ণবাদী মানসিকতা যা অস্পৃশ্যতাকে বৈধতা দেয় এবং যারা বলে মন্দিরে দলিতরা প্রবেশ করলে মন্দির অপবিত্র হয়ে যায়।’

তিনি আরো বলেন, মহান ব্যক্তিদের ‘পবিত্র’ করার মানসিকতাই অপবিত্র।

Related posts