September 21, 2018

মাশরাফির তাণ্ডবে জয়ের দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ

mashশ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের পূর্বে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশকে ৩৫৫ রানের বিশাল টার্গেট ছুঁড়ে দিয়ে ছিল শ্রীলংকা প্রেসিডেন্ট একাদশ। রানের পাহাড় মাথায় নিয়ে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার সৌম সরকার ও ইমরুল কায়েস। কিন্তু প্রথম বলেই উইকেট হারাতে হয় সফরকারিদের।

লঙ্কান পেসার বিনুরা ফার্নান্দোর বলে ফরোয়ার্ড ডিফেন্স করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন ইমরুল কায়েস। শূন্য হাতে ফিরেন তিনি। তবে ইমরুলের বিদায়ে কিছুটা চাপে পড়লেও সৌম-সাব্বিরের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে অনেকটাই এগিয়ে যায় বাংলাদেশ দল। ১১৬ রানের দারুণ এক জুটি গড়ে দুই জনে। তবে মাত্র ৩ রানের আক্ষেপ নিয়ে ফিরতে হয় সৌম্যকে। সিরিবর্ধানার বলে শানাকার হাতে তালুবন্দি হলে সৌম্যের ৪৭ রান করে ফিরতে হয় তাকে। সৌম্যর বিদায়ের পর ক্রিজে থিতু হতে পারেননি সাব্বিরও। চতুরঙ্গা ডি সিলভার বলে থিসারা পেরেরার হাতে ক্যাচ হয়ে সাজঘরে ফেরেন সাব্বির। সাজঘরে ফেরার আগে ৬৩ বলে ১১ চার ও ১ ছক্কায় ৭২ রানের ইনিংস খেলেন হার্ডহিটার এ ব্যাটসম্যান।

টেস্ট দলপতি মুশফিকুর রহিমের ব্যাটে কিছুটা প্রতিরোধের চেষ্টা করলেও ব্যক্তিগত ২০ রানের সময় সিলভার বলে শানাকার হাতে ধরা পড়েন তিনি। তবে মুশফিকের বিদায়ে কিছুটা হোছট খেলেও মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে জুটি বেঁধে দলকে অনেক এগিয়ে নিয়ে যান মোসাদ্দেক। তবে ফিফটির পর ফেরেন মোসাদ্দেক। এর এক ওভার বিরতিতে শুভাগত হোমকেও হারায় বাংলাদেশ।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪৪ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৯৪ রান। ক্রিজে আছেন মুর্তজা (৩৯) ও মাহমুদউল্লাহ্ (৪৩)।

এর আগে কলম্বো ক্রিকেট ক্লাব মাঠে টস জিতে লঙ্কানদের ব্যাটিংয়ে পাঠায় বাংলাদেশ দলের দলপতি মাশরাফি বিন মুর্তজা। টাইগারদের পক্ষে মাশরাফি, তাসকিন, আবুল হাসান ও সানজুমল ইসলাম নেন একটি করে উইকেট।

বাংলাদেশ একাদশ: সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মুশফিকুর রহিম, সাব্বির রহমান, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন, মাশরাফি বিন মুর্তজা, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, সানজামুল ইসলাম ও শুভাগত হোম চৌধুরী।

শ্রীলঙ্কান প্রেসিডেন্ট একাদশ: মিলিন্দা সিরিবর্ধনে, কুশল পেরেরা, দিলশান মুনাওয়ারা, সান্দুন ওয়েরেকদি, ধনাঞ্জায়া ডি সিলভা, চতুরাঙ্গ ডি সিলভা, থিসারা পেরেরা, লাহিরু মাদুশাঙ্কা, দাসুন শানাকা, আকিলা ধনাঞ্জায়া, সাচিথ পাথিরানা।

 

Related posts