September 23, 2018

মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়াবেন ‘দ্যা রক’

দ্যা রক

ঢাকা: যেনো তেনো মানুষ নন তিনি। বিশ্ব রেস্লিং মঞ্চে দ্যা রক খ্যাত এই পেশি বহুল খেলোয়াড় চিত করেছেন শত প্রতিদ্বন্দ্বীকে। স্কুলে ছিলেন পপ স্টার, কলেজে এসে মায়ামি হারিকেন্স ফুটবল (রাগবি) টিমের অধিনায়ক হয়ে জিতেন ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশিপ।

এরপর ১৯৯৬ সালে পেশাদার রেসলার হিসেবে সারা বিশ্বে পরিচিতি লাভ করেন। এর পর ১৯৯৯ সালে ‘দ্যা মামি’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে আসেন। বর্তমানে তিনি বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক নেয়া অভিনেতা। এমনকি সম্প্রতি থ্যা রক খ্যাত এই ডোয়াইন ডগলাস জনসন অর্জন করেছেন পৃথিবীর সবচেয়ে আবেদনময়ী পুরুষের খেতাব।

জীবনের সকল ক্ষেত্রে অনন্য সাফল্য অর্জনকারী এই নায়ক এবার জানালেন নিজের সর্বচ্চ বাসনার কথা। এবার রাজনীতির ময়দানে আসার পরিকল্পনা করছেন তিনি। ভবিষ্যতে কোনো একদিন হোয়াইট হাউসকে চালানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়াতে চান ৪৪ বছর বয়সী এই তারকা।

গত সপ্তাহে অনুষ্ঠিত আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন ডোয়াইন। ভক্তদেরও চাওয়া তিনি হোয়াইট হাউসের কান্ডারি হবেন।

তার কথায়, ‘আমার দেশকে ভালোবাসি। আমি দেশপ্রেমিক মানুষ। আমি মনে করি, বর্তমান পরিস্থিতিতে যোগ্য নেতৃত্ব খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দেশের কল্যাণে ভালো নেতৃত্ব ও সম্মানজনক নেতৃত্ব প্রয়োজন।’

হোয়াইট হাউস চালানোর ইচ্ছা আছে কি-না জানতে চাইলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে ‘দ্য ফাস্ট অ্যান্ড দ্য ফিউরিয়াস’ ফ্রাঞ্চাইজির তারকা ডোয়াইন জনসন বলেন, ‘নিজেকে যদি আমাদের জন্য কার্যকরী নেতা হতে পারবো বলে মনে হয় এবং আশেপাশে সত্যিকার অর্থেই উচ্চমানসম্পন্ন নেতারা থাকলে প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়াবো।’

মানুষকে ইতিবাচকভাবে উদ্বুদ্ধ করে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে সত্যিই বলার মতো সাফল্য পেয়েছি। আমি নিজেও একইভাবে চলি, যা বলি তা করে দেখাই। এটা গুরুত্বপূর্ণ গুণ বলে মনে হয় আমার কাছে।’

Related posts