October 20, 2018

মাদারীপুরে সন্ত্রাসী হামলায় বিএনপি নেতা গুরতর আহত

Madaripur 18-09-18 (Attack On BNP Leader) Picপ্রতিনিধি, মাদারীপুর
মাদারীপুর সন্ত্রাসী হামলায় গুরতর আহত হয়েছেন বিএনপি’র এক নেতা। গত সোমবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার চরমুগরিয়া এলাকার বিএনপির আঞ্চলিক কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার আহত ওই নেতাকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
সন্ত্রাসী হামলায় আহত ওই নেতার নাম গাউছ-উর রহমান (৩৮)। তিনি সদর উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এবং এ. এইচ ইন্টারনেশনায় স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্র জানায়, সোমবার রাতে দলীয় একটি সভায় যোগ দিতে চরমুগরিয়া বিএনপি’র আঞ্চলিক কার্যালয়ে আসেন বিএনপির নেতা গাউছ-উর-রহমান। সভা শেষে কার্যালয় থেকে বাহিরে আসেন তিনি। পরে তার নিজ বাড়ি শহরের ইটেরপুর যাওয়ার উদ্দেশ্যে চরমুগরিয়া-শ্রীনদী সড়কের পাশে রিক্সার জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন। এ সময় ১০ থেকে ১২ জন যুবক তাকে ঘিরে ধরে। পরে তাকে দেশীয় অস্ত্র ও হকিস্টিক দিয়ে বেদম মারধর করা হয়। পরে তার চিকিৎকারে দলের অন্য নেতাকর্মীরা ছুটে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। তাকে গুরতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়।
আহত অবস্থায় গাউছ-উর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ‘দলীয় সভা শেষ করে বাসায় যাওয়ার পথে আওয়ামী লীগ কর্মী বোরহান খান ও খবির খানের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী হকিস্টিকসহ দেশীয় অস্ত্র হাতে নিয়ে আমার উপর অর্তিকিত হামলা চালায়। আমি এই হামলার বিচার চাই।’
জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহান্দার আলী বলেন, ‘বিএনপির নেতাদের লক্ষ করে আওয়ামী লীগের এটি পরিকল্পিত হামলা। আমরা এই হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমরা এ ঘটনা পুলিশকে অবহিত করেছি। কিন্তু পুলিশের পক্ষ থেকে কোন সাড়া আমরা এখনো পাইনি।’
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে মুঠোফোনে বলেন, বিএনপি কোন নেতাকর্মীর উপর আমাদের কোন লোক হামলা চালায়নি। আর বোরহান খান ও খবির খানসহ আরো যাদের নাম বলা হচ্ছে তারা কেউ আওয়ামী লীগের সাথে জড়িত নয়। তাঁরা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে বিনএপি জামাতের কর্মী। তারা আওয়ামী লীগের নাম পরিচয় দিয়ে সুবিধা নিয়ে থাকেন।’
মাদারীপুর সদর মডেল থানার কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল হাসান বলেন, ‘বিএনপির নেতা উপর হামলার ঘটনা নিয়ে আমাদের কাছে এখনো কেউ কোন অভিযোগ করেনি। যদি তারা আমাদের কাছে আসেন তবে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Related posts