November 16, 2018

মাজার নিয়ে এবার মুখ খুললেন আল্লামা শফী

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির ও বাংলাদেশ কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেছেন, ‘আজকাল অনেকে মাজারে মাজারে ঘুরে আল্লাহ আল্লাহ করছে। আর মাজারওয়ালাকে বলছে, আমার একটা ছেলে সন্তান দাও। আবার অনেকেই বলছে, মাওলানা মাওলানা দীন দুনিয়ার মালিক বাবা মাওলানা। এসব শিরক। দীন দুনিয়ার মালিক আল্লাহ। ওইসব বাবার আস্তানায় এমন কোনো গুনাহ নেই যা হয় না।’

বুধবার রাত সাড়ে ৭টায় নারায়ণগঞ্জ শহরের জামতলায় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে দিনব্যাপী ইসলামী মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

আল্লামা শফী বলেন, ‘আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করতে হবে। এটা ওয়াজিব। আমাদের জিকির করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘এক শ্রেণির মানুষ যারা নিজেদের সুন্নি দাবি করে আমাদের ওহাবি বলে ব্যাখ্যা করছে। অথচ সারাদেশে সুন্নি খুঁজে পাওয়া যাবে না। যারা ওহাবি আর সুন্নি বলে মুসলমানদের মধ্যে প্রার্থক্য করছে তারা কতজন লোক রয়েছে তা নিজেরাই জানে না।’

আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেন, ‘সুন্নিরা বলে, যারা দরূদ পড়েনি তাদের মধ্যে নবীর মহব্বত নেই। যাদের মধ্যে নবীর মহব্বত নেই তারা ওহাবি। কিন্তু প্রকৃত হলো ওহাবির অর্থ আল্লাহওয়ালা। আল্লার নাম ওহাব। আমাদের ওহাবি বললে আমরা আল্লাওয়ালা হচ্ছি। মসজিদ, মাদরাসায় আমাদের লোক আছে তারা তো ওহাবি।’

কাদিয়ানী সম্প্রদায়ের কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘কাদিয়ানীরা অমুসলিম। যারা তাদের অমুসলিম বলে না তারাও কাদিয়ানী।’

বাংলাদেশ কওমী মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড (বেফাক) নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে নারায়ণগঞ্জে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনাসহ ওই ইসলামী মহাসম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এ সময় কওমী মাদরাসার আওতায় দাওরায়ে হাদীস ও মেশকাত পরীক্ষায় প্রথম স্থান অর্জনকারী ২২০ জনকে সম্মাননা দেয়া হয়।

বাংলাদেশ কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা আব্দুল কাদিরের সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের মহাসচিব আল্লামা আব্দুল জব্বার জহানাবাদী, সিনিয়র সহ-সভাপতি শাইখুল হাদীস আল্লামা আশরাফ আলী, সহ-সভাপতি আল্লামা তোফাজ্জাল হক হবিগঞ্জী, আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী, মাওলানা মুফতি মিজানুর রহমান সাঈদ, চরমোনাই পীরের প্রতিনিধি মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দীন, টঙ্গী জামিয়া নুরিয়ার মুহাদ্দিস মাওলানা নজীর আহমদ, নারায়ণগঞ্জ ডিআইটি জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আব্দুল আউয়াল, সাইনবোর্ড জামিয়াতু ইব্রাহীম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মুফতি শফিকুল ইসলাম, দৈনিক ইনকিলাবের নির্বাহী সম্পাদক মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী, কওমী মাদরাসা বোর্ডের সহকারী মহাসচিব মাওলানা জুবায়ের আহমদ চৌধুরী, কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাওলান ইউসুফ, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, জেলা হেফাজতের সমন্বয়ক মাওলানা ফেরদাউসুর রহমান, মাওলানা দেলোয়ার হোসাইন প্রমুখ।

 

Related posts