November 21, 2018

মধ্যপ্রাচ্যে শান্তিপ্রক্রিয়া ব্যাহত হওয়ার শঙ্কায় জাতিসংঘ

জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুন

জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুনসৌদি আরব ও ইরানের কূটনৈতিক বিরোধে সিরিয়া ও ইয়েমেনে শান্তি আলোচনা হোঁচট খেতে পারে এ আশঙ্কায় জাতিসংঘ শান্তিপ্রক্রিয়া রক্ষায় দ্রুত উদ্যোগী হয়েছে। সিরিয়ায় জাতিসংঘ দূত স্টেফান ডি মিটুরা আলোচনার জন্য এরই মধ্যে রিয়াদ গেছেন। এদিকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ সোমবার ইরানে সৌদি দূতাবাসে হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। সংবাদসূত্র : এএফপি অনলাইন, বিবিসি

বার্তা সংস্থাগুলো বলছে, চলতি সপ্তাহের শেষ দিকে মিটুরা তেহরানও যাবেন। সিরিয়ার শান্তি আলোচনায় অর্জিত সাফল্য যেন ঝুঁকির মধ্যে না পড়ে, তা সামলাতেই জাতিসংঘ দূত এ পদক্ষেপ নিয়েছেন। প্রভাবশালী শিয়া ধর্মীয় নেতা শেখ নিমর আল-নিমরের মৃত্যুদন্ড রিয়াদ কার্যকরের পর বিক্ষোভকারীরা তেহরানে সৌদি দূতাবাসে হামলা চালায়। এর প্রতিক্রিয়ায় সৌদি আরব রোববার ইরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে। উভয় দেশের কূটনৈতিক অচলাবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুন টেলিফোনে সৌদি আরব ও ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি পরিস্থিতি আরো নাজুক করার মতো যে কোনো পদক্ষেপ এড়িয়ে চলতে উভয়পক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। বান কি মুনের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিক জানান, রিয়াদ ও তেহরানের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার কারণে এ অঞ্চলে মারাত্মক পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।

উল্লেখ্য, সিরিয়ার প্রায় পাঁচ বছরের গৃহযুদ্ধ অবসান এবং ইয়েমেনের জন্য একটি রাজনৈতিক সমাধান আনতে ইরান ও সৌদি আরব উভয় দেশের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। যদিও সৌদি দূত আবদুল্লাহ আল-মুয়ালিমি বলেছেন, ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে গেলেও সিরিয়া ও ইয়েমেনের শান্তিপ্রক্রিয়ায় তা প্রভাব ফেলবে না। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, পরবর্তী দফার সিরীয় শান্তি আলোচনায় সৌদি আরব অবশ্যই অংশ নেবে।

সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবায়েরের সঙ্গে আলাপকালে বান কি মুন শেখ নিমর আল-নিমরের মৃত্যুদন্ড কার্যকরের জন্য অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। একই সঙ্গে তিনি তেহরানে সৌদি দূতাবাসে হামলাকে দুঃখজনক এবং ইরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের সৌদি সিদ্ধান্তে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভাদ জারিফের সঙ্গে আলাপকালে বান কি মুন কূটনৈতিক স্থাপনা রক্ষার জন্য তেহরানের প্রতি আহ্বান জানান।

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, সৌদি-ইরান দ্বন্দ্বে সিরিয়ার শান্তি প্রচেষ্টা ব্যাহত হবে। রাশিয়া-আমেরিকাসহ বিশ্বে শক্তিধর অন্যান্য দেশের সমন্বয়ে চলা শান্তি আলোচনায় আবার রিয়াদ ও তেহরানকে একই টেবিলে বসানো হবে কঠিন কাজ।

দূতাবাসে হামলার নিন্দা জাতিসংঘের

এদিকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ সোমবার ইরানে সৌদি দূতাবাসে হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। উল্লেখ্য, শনিবার প্রভাবশালী শিয়া ধর্মীয় নেতা শেখ নিমর আল-নিমরের মৃত্যুদন্ড রিয়াদ কার্যকর করার পর বিক্ষোভকারীরা ইরানে সৌদি দূতাবাসে হামলা চালায়।

নিরাপত্তা পরিষদের ১৫ সদস্যের দেয়া এক বিবৃতিতে শেখ নিমর আল-নিমরের মৃত্যুদন্ড কার্যকরের বিষয়টি উল্লেখ না করে ইরানের প্রতি কূটনৈতিক ও সম্পদ রক্ষার আহ্বান জানানো হয়েছে। নিরাপত্তা পরিষদের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, পরিষদ তেহরানে সৌদি দূতাবাস এবং মাশহাদে সৌদি কনস্যুলেটে হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে। হামলায় ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে পরিষদ কূটনৈতিক ও সম্পদ রক্ষা এবং এর পরিপ্রেক্ষিতে আন্তর্জাতিক দায়দায়িত্বের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে ইরানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts