November 15, 2018

ভিক্ষুক পুনর্বাসন কর্মসূচি ১৫০ ভিক্ষুক পুনর্বাসিত করলেন ডা. দীপু মনি

33এ কে আজাদ, চাঁদপুর : চাঁদপুর সদর উপজেলায় ভিক্ষুক পুনর্বাসন কর্মসূচি প্রকল্পের আওতায় ৪ ইউনিয়নে তালিকাভুক্ত ১৫০ জন ভিক্ষুককে পুনর্বাসন করা হয়েছে। বুধবার (৯ মে) দুপুর ১২টায় চাঁদপুর সদর উপজেলা মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ১৫০ ভিক্ষুকেরর হাতে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ডা. দীপু মনি। এ সময় তিনি বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা জনগনের কল্যণে কাজ করে যাচ্ছেন। দেশ আজ উন্নয়নের দিকে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। এখন আর কেউ না খেয়ে মারা যায় না। সকলের খাওয়ার ব্যবস্থা করে দিয়েছে শেখ হাসিনা। বর্তমান সরকারের অঙ্গিকার প্রতিটা মানুষের খাদ্য,স্বাস্থ্য ও বাসস্থান নিশ্চিত করা। সেই লক্ষ নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছে বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকার। তিনি আরো বলেন, সরকার দেশ থেকে দারিদ্র দূরিকরনের লক্ষে ভিক্ষা বৃত্তি বন্ধ, বিধবা, বয়স্ক ও কৃষি ভাতার ব্যবস্থা করেছে। দেশের মানুষ আজ সরকারের উন্নয়ন কাজ গুলোর সফলতা ভোগ করছেন। এ উন্নয়নেরধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন। তিনি তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নের কথা উল্যেখ করো আরো বলেন, ৫৭ তম দেশ হিসেবে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু সেটেলাইট উৎক্ষেপন করছে। এ সেটেলাইট থেকে আমরা প্রযুক্তিগত নানাবিথ সুবিধা পাব। আবহাওয়া, কৃষি, টেলিযোগাযোগ হতে আরম্ভ করে আরো অনেকগুলো বিষয়ে আমরা বঙ্গবন্ধু সেটেলাইটের মাধ্যমে সুবিধা ভোগ করবো। যে ১৫০ জন ভিক্ষুককে পুনর্বাসন করা হয়েছে তারা হলেন, সদর উপজেলার মৈশাদী ইউনিয়নের, ইব্রাহীমপুর ইউনিয়ন, হানারচর ও রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের বাসিন্দা। তাদের চাহিদা অনুযায়ী টাকা দিয়ে পুনর্বাসন করা হয় এবং তারা আর ভিক্ষা করবেন না মর্মে অঙ্গীকার করে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন। চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আমান উল্যাহ রাজু চৌধুরী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, সাধারণ সম্পাদক আলী আরশাদ মিয়াজী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কানিজ ফাতেমা। একই অনুষ্ঠানে উপজেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে ডা. দীপু মনি এমপি সদর উপজেলার তালিকাভুক্ত বয়স্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধীদের মধ্যে ভাতার কার্ড বিতরণ করেন। চাঁদপুর সদর উপজেলায় বর্তমানে ১ হাজার ৪০৪ জন ভাতাপ্রাপ্ত উপকারভোগী রয়েছেন।

Related posts