April 20, 2019

তাসকিন সানির বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন আকরাম খান

ভারত ও আইসিসির অবিচার নিয়ে মুখ খুললেন আকরাম খান

স্পোর্টস ডেস্ক : বাংলাদেশকে প্রথম বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ এনে দেয়ার নায়ক ছিলেন আকরাম খান। এরপর কেটে গেছে অনেকগুলো বছর। টাইগারদের সাবেক এই অধিনায়ক মাঠের ক্রিকেট ছাড়লেও তিনি এখন কর্মকর্তা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান তিনি।

ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দলের সঙ্গে আছেন শুরু থেকেই। বাছাই পর্বে দলের স্বপ্ন জয়ের আনন্দে যেমন গর্বিত হয়েছেন, তেমনি সুপার টেনে এসে স্বপ্ন ভাঙার কষ্টে মুষড়েও পড়েছেন। দলের হারের সঙ্গে দেখেছেন আইসিসি’র করা অনাচার ও নানা রকমের কলুষিত ক্রিকেট রাজনীতিও। গতকাল বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ শুরুর আগে হেঁটে হেঁটে স্টেডিয়ামের দিকে যাচ্ছিলেন আকরাম খান। বিশ্বকাপ, বাংলাদেশ ক্রিকেট ও আইসিসি’র ভূমিকা নিয়ে বলে গেলেন মনের কথা। সেই কথোপকথনের মূল অংশ তুলে ধরা হলো-

প্রশ্ন: শুরু থেকেই দলের সঙ্গে ভারতে আছেন। এই পর্যন্ত সাফল্য-ব্যর্থতাকে কিভাবে ব্যাখ্যা করবেন?
আকরাম খান: আজকের (গতকাল) ম্যাচের পর বললে হয়তো আরও ভালো হতো। সবাই জানে বাংলাদেশকে এখনও বাছাই পর্ব খেলতে হয়। ২০১৪ সালের সেই পর্বে আমাদের খুব একটা ভালো হয়নি। এবার কিন্তু বলতে পারছি আমরা খুবই ভালো করেছি বাছাই পর্বে। আবহাওয়া ও কন্ডিশনও কিন্তু ধর্মশালাতে আমাদের বিপক্ষে ছিল। তবুও টেস্ট খেলুড়ে দেশ হিসেবে যেভাবে দাপটের সঙ্গে খেলার কথা ছিল সেইভাবেই দল খেলতে পেরেছে এটা অনেক বড় প্রাপ্তি। এরপর সুপার টেনে পাকিস্তানের বিপক্ষে টসে হেরে শুরু। এই উইকেট সম্পর্কে খুব একটা ধারণা না থাকায় যা হওয়ার তাই হয়েছে। দল কিন্তু ভেঙে পড়েনি। বেঙ্গালুরুতে দলের দু’জন সেরা ক্রিকেটারকে হারালাম। তামিম খেলতে পারলো না। তাও অস্ট্রেলিয়াকে আমরা ধরেই ফেলেছিলাম। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি সবাই দেখেছেন। এই ম্যাচ নিয়ে বলবো আমরা জয় ছাড়া সবই পেয়েছি। ভারতের ভাগে শুধু পয়েন্টটাই গেছে। মূল কথা হচ্ছে আমরা কিন্তু বিশ্ব ক্রিকেটে টি-টোয়েন্টি ফরমেটে খেলার সুযোগ তেমন একটা পাই না। ওয়ানডের তুলনায় আমাদের টি- টোয়েন্টি দল তেমন ভালো ছিল না। এই বিশ্বকাপে কিন্তু আমরা একটি দল পেয়েছি। যারা যে কোনো দলকে যে কোনো মুহূর্তে ক্রিকেটের এই ছোট ফরমেটে হারাতে পারে।

প্রশ্ন: তাসকিন-সানি দিয়ে আইসিসি’র বিতর্ক শুরু। এরপর একে একে ভারতের পক্ষে যায় এমন অনেক বিতর্কিত সিদ্ধান্তও আইসিসি’র ছিল। এই বিষয়ে কি বলবেন?
আকরাম খান: তাসকিনের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আমরাতো যা বলার বলেছি। আইসিসি’র অবিচারতো ছিলই। এটিও সত্যি ভারত আইসিসি’র কাছ থেকে যে সুবিধা পায় সেই সুবিধা আমরা পাই না। তবে সেই ম্যাচে আমাদের ছেলেরা যদি শেষে এসে ভুলগুলো না করতো তাহলে ভারতকে হারানো যেত এটাতে কোন সংশয় নেই।

প্রশ্ন: ভারত এখনও টেস্ট খেলার জন্য বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানায়নি। এই বিষয়টা নিয়ে কোনো কাজ করছেন?
আকরাম খান: আমরা টেস্টে ওয়ানডের তুলনায় খুব একটা উন্নতি করতে পারিনি। এর কারণ ওয়ানডের তুলনায় টেস্টে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সুযোগ কম। তবে বোর্ড কাজ করছে। আশা করি অচিরেই ভারতে আমরা টেস্ট খেলতে আসবো।

প্রশ্ন: ভাতিজা তামিম ইকবালের ব্যাটিংয়ে নতুন রূপ দেখে কতটা মুগ্ধ?
আকরাম খান: তামিম আগেও ভালো খেলতো। এখন আরও ভালো খেলছে। এটি দলের জন্য বড় বিষয়। এছাড়াও দলের অনেকই আছে যারা খুবই ভালো ব্যাটিং করছে। এই বিষয়টিও আমার ভালো লাগে। তবে মুশফিককে নিয়ে একটু চিন্তিত। সে আমাদের সেরা ব্যাটসম্যান ও তাড়াতাড়ি রানে ফিরবে- এটাই আমার বিশ্বাস।

প্রশ্ন: এই বিশ্বকাপে প্রাপ্তি কি?
আকরাম খান: আমি বলবো এশিয়ার তিনটি দলের বিপক্ষে টি- টোয়েন্টি আমাদের যে জয়ের সামর্থ্য আছে সেটি এই বিশ্বকাপে প্রমাণ হয়েছে। আমি আগেই বলেছি টি-টোয়েন্টিতে আমাদের একটি পূর্ণাঙ্গ দল ছিল না। এখন বলবো বিশ্বের যে কোনো দলকে এই ফরমেটে চ্যালেঞ্জ করার মতো ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং রয়েছে আামাদের। আমি একজন সাবেক অধিনায়ক হিসেবে বলতে চাই এইভাবে খেলতে থাকলে আমাদেরকে হারানোটা যে কোনো দলের জন্যই কঠিন। সূত্র : মানবজমিন

Related posts