November 13, 2018

ভারতে পাচারকালে গাজীপুরের স্বপ্না যশোর থেকে উদ্ধার ও পাচারকারী আটক

গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈরের মুরাদপুর এলাকার কিয়ামদ্দিনের মেয়ে স্বপ্না আক্তার সুলতানাকে (১৪) ভারতে পাচারকালে যশোর থেকে উদ্ধার করেছে ঝিকরগাছা থানা পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত পাচার চক্রের তিন সদস্যকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার যশোরের ঝিকরগাছা বাসস্টান্ড- এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলো- সাখাওয়াত হোসেন যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার পারবাজার শিক্ষক পাড়া এলাকার শাহজাহান ম-লের ছেলে, পারভীন বেগম টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর উপজেলার নগর ছাওয়ালী গ্রামের আলী হোসেন ওরফে আরিফ হোসেনর স্ত্রী ও টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার ছোট বাসাইল গ্রামের শ্রীরাম দাসের মেয়ে আল্পনা দাস। ঝিকরগাছা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল আজিজ জানান, গাজীপুরের কালিয়াকৈরের মুরাদপুর গ্রামের মৃত কিয়ামদ্দিনের মেয়ে স্বপ্না আক্তার সুলতানাকে (১৪) কয়েকদিন আগে তার চাচাতো ভাই মনির হোসেন অপহরণের পর নারী পাচারকারী দলের সদস্য কালিয়াকৈরের হরতকিতলা এলাকার শাহজাহানের বাড়ির ভাড়াটিয়া পারভীন বেগমের নিকট বিক্রি করে দেয়। পরে পারভীন বেগম ও তার সহযোগি আল্পনা দাস স্বপ্নাকে নিয়ে কক্সবাজারের একটি হোটেলে আটকে রেখে দেহ ব্যবসা করায়।

এর পর গত রোববার রাতে স্বপ্নাকে ভারতে পাচারের উদ্দেশে কক্সবাজার থেকে যশোরের ঝিকরগাছা থানার পারবাজার শিক্ষক পাড়া এলাকার সাখাওয়াত হোসেনের বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখে। সেখান থেকে একদিন পর (আজ) মঙ্গলবার বেনাপোলের বাসে উঠানোর সময় পাচারকারীদের হাত থেকে স্বপ্না আক্তার কৌশলে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে।

এ সময় পাচারকারী সাখাওয়াত হোসেন স্বপ্নাকে ধরতে যায়। এই বিষয়টি এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে সাখাওয়াত হোসেনসহ স্বপ্নাকে আটক করে ঝিকরগাছা থানা পুলিশে সোপর্দ করে। পরে সাখাওয়াত হোসেনের স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার গ্রামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পাচারকারী দলের সদস্য পারভীন আক্তার ও আল্পনা দাসকে আটক করা হয়। তিনি আরো জানান, পাচারকারী দলের সদস্য পারভীন আক্তার ও আল্পনা দাস গাজীপুরের কালিয়াকৈরের বিভিন্ন এলাকায় বাড়ি ভাড়া করে পাচারের উদ্দেশে মেয়ে সংগ্রহ করতো এবং দেহ ব্যবসা করাতো।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ডট কম/মেহেদি/ডেরি

Related posts