November 21, 2018

ভারতকে হারিয়ে কিউইদের উড়ন্ত জয়

নাগপুরের বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের ছুঁড়ে দেওয়া ১২৭ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৭৯ রানেই গুটিয়ে গেছে টিম ইন্ডিয়া। নিউজিল্যান্ড ৪৭ রানের বড় জয় তুলে নিয়েছে।

এর আগে ভারতের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে নিউজিল্যান্ড ১২৬ রান সংগ্রহ করে। যা ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে নিউজিল্যান্ডের সর্বনিম্ন স্কোর। ব্যাটিংয়ে নেমে ১৮.১ ওভারে অলআউট হয় ভারত।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ছয় দিয়ে ম্যাচ শুরু করে কিছুটা উত্তেজনা ছড়িয়ে দেন। কিন্তু পরের বলে আম্পায়ারের এলবির ভুল সিদ্ধান্তে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। অশ্বিনের প্রথম ওভারে এক উইকেট হারিয়ে ১৩ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। পরের ওভারে বল হাতে আশিষ নেহেরার সুইংয়ের ফাঁদে পড়ে পান্ডের হাতে ক্যাচ দিতে বাধ্য হন তিন নম্বরে খেলতে নামা কলিন মুনরো (৭)।

ইনিংসের সপ্তম ওভারে কেন উইলিয়ামসনকে ফেরান সুরেশ রায়না। ধোনির স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়েন ১৬ বলে ৮ রান করা উইলিয়ামসন।

দলীয় ৬১ রানের মাথায় টপঅর্ডারের চার উইকেট হারায় কিউইরা। ইনিংসের ১২তম ওভারে রস টেইলর (১০) রান আউটের ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফেরেন।

ইনিংসের ১৬তম ওভারে জাসপ্রিত বুমরাহ বোল্ড করেন কোরি অ্যান্ডারসনকে। ৪২ বলে তিনটি বাউন্ডারিতে ৩৪ রান করেন অ্যান্ডারসন। দলীয় ৬১ রানে চার উইকেট পড়ে গেলেও উইকেটে থেকে জুটি গড়ে আরও ২৮ রান যোগ করেন কোরি অ্যান্ডরসন এবং মিচেল স্যান্টনার।

১৭তম ওভারে ধোনির হাতে ধরা পড়েন ১৭ বলে ১৮ রান করা স্যান্টনার। রবীন্দ্র জাদেজার বলে বিদায় নেন তিনি। শেষ ওভারে রানআউট হন গ্রান্ট ইলিয়ট (১২ বলে ৯ রান)। লুক রঞ্চি ২১ রানে অপরাজিত থাকেন।

ভারতের হয়ে একটি করে উইকেট তুলে নেন অশ্বিন, নেহারা, বুমরাহ, রায়না ও জাদেজা।

ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করা নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মার্টিন ক্রো-কে স্মরণ করে ভারতের বিপক্ষে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে কালো ব্যাজ ধারণ করে মাঠে নামেন কিউই ক্রিকেটাররা।

নিউজিল্যান্ডের ছুঁড়ে দেওয়া ১২৭ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নামেন ভারতের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও শিখর ধাওয়ান। ইনিংসের প্রথম ওভারে ফেরেন শিখর ধাওয়ান। নাথান ম্যাককালামের বলে এলবির ফাঁদে পড়েন ভারতীয় এ ওপেনার। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে স্যান্টনারের বলে স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন রোহিত শর্মা। একই ওভারে বিদায় নেন সুরেশ রায়না। গাপটিলের হাতে ধরা পড়েন তিনি।

ইনিংসের পঞ্চম ওভারে ম্যাককালামের বলে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে ফেরেন যুবরাজ সিং (৪ রান)।

ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ২৬ রানেই টপঅর্ডারের চার ব্যাটসম্যানকে হারায় টিম ইন্ডিয়া। এরপর কোহলি-ধোনি জুটি গড়তে চাইলেও সেই জুটি ভেঙে দেন ইশ সোধি। ২৭ বলে ২৩ রান করে উইকেটের পেছনে লুক রঞ্চির হাতে ধরা পড়েন কোহলি।

এরপর দশম ওভারে হারদিক পান্ডেকে এলবির ফাঁদে ফেলেন স্যান্টনার। দলীয় ৪২ রানের মাথায় ছয় ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফেরেন। ১১তম ওভারে জাদেজাকে ফিরিয়ে দেন সোধি। ১৭তম ওভারে সোধি স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেলেন ১০ রান করা অশ্বিনকে।

ধোনি ৩০ বলে করেন ৩০ রান। ১৮তম ওভারে বিদায় নেন ভারতের দলপতি।

Related posts