November 17, 2018

ভাঙ্গা রাস্তার ঝাঁকুনিতে অটোবাইকে গৃহবধূর সন্তান প্রসব

zakir pic
তোফায়েল হোসেন জাকির, গাইবান্ধা ॥ গাইব্ন্ধাার সাদুল্যাপুর উপজেলার বেহাল দশায় পরিনত নলডাঙ্গা- সাদুল্যাপুর পাকা সড়কে তীব্র ঝাঁকুনিতে লাইজু (২৫) নামের গর্ভধারীনি এক গৃহবধূ চলন্ত অটোবাইকে একটি কন্যা সন্তান প্রসব করেছেন। ওই গৃহবধূ লাইজু বেগম নলডাঙ্গা ইউনিয়নের প্রতাপ গ্রামের আনিছুর মিয়ার স্ত্রী। উপজেলার নলডাঙ্গা পুরাতন টেম্পু স্ট্যান্ড সংলগ্ন রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। সোবমার বিকেলে রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নবজাতক ও প্রসূতি সুস্থ আছে বলে তার স্বজনেরা জানান।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, লাইজু বেগম গর্ভবর্তী হওয়ায় হঠাৎ শারিরীক অবস্থার অবনতি জনৈক চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নিতে যান। রোববার সন্ধ্যায় চিকিৎসা শেষে ওইবধু অটোবাইক যোগে বাড়ীতে ফিরছিলেন। রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগি হওয়ায় বাইকের অতিরিক্ত ঝাঁকুনিতে তার প্রসব বেদনা উঠে। একপর্যায়ে গর্ভবর্তী লাইজু চলন্ত অটোবাইকে একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তান জন্ম দেন। এ সময় নবজাতক কে এক নজর দেখার জন্য নারী পুরুষ ভীড় করতে থাকেন।
অটোবাইক চালক আনিছুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অটোবাইকে উঠেই অন্ত:স¦ত্বা লাইজু পেটে ব্যথা অনুভব করতে থাকেন। এমতবস্থায় তড়িঘড়ি করে গাড়ীটি আড়ালে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় আশে পাশের মহিলাদের সহযোগিতায় লাইজু একটি বাচ্ছা প্রসব করেন।
এদিকে স্থানীয়দের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে সড়কটি কোন রকম সংস্কার কিংবা মেরামত না করায় অসংখ্য খানা খন্দে সড়কটি যেন মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। ফলে প্রতিনিয়তই ব্যস্ততম সড়কটিতে ছোট বড় কোন না কোন দূর্ঘটনা ঘটছেই। নলডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম নয়ন এ ঘটনার সত্যতা স্বাীকার করেছেন।

Related posts