December 10, 2018

ভাগ্যবান পিতার ভাগ্যবান মেয়ে মায়িশা

photoমোঃ আবুল কাশেম, বিশ্বনাথ ( সিলেট ) প্রতিনিধি :: বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মো. ছয়ফুল হক ৭ মে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন। এই আনন্দের রেশ কাটতে না কাটতেই আরেক আনন্দ। এই আনন্দটা হচ্ছে মেয়েকে নিয়ে। ছয়ফুল হকের একমাত্র মেয়ে অনিকা হক মায়িশা রামসুন্দর অগ্রগামী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ ৫ পেয়েছে। কৃতিত্বপূর্ণ এ ফলাফলে খুশি মায়িশার মা,বাবা, ভাই ও শিক্ষক, শিক্ষিকারা।

মায়িশাঅনিকা হক মায়িশা জানায়, কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলে মা, বাবা আর শিক্ষকদের অবদানের কথা। তারা সব সময় অনুপ্রেরণা দিয়েছেন। উৎসাহ দিয়েছেন। মায়িশা পড়ালেখা করে একজন ডাক্তার হবে এমন প্রতিক্রিয়া জানায় এ প্রতিবেদককে। সে সবার দোয়া প্রার্থী। অনিকা হক মায়িশা বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের ৩য় বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. ছয়ফুল হক ও কেরামত আলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকা সামিয়া বেগমের একমাত্র মেয়ে।
অনিকা হক মায়িশা ৫ম ও ৮ম শ্রেণীতে ট্যালেন্টপুল বৃত্তিসহ বিভিন্ন বেসরকারী বৃত্তি লাভ করে মেধার সাক্ষর রেখেছে। এছাড়া জেলা ও বিভাগ পর্যায়ে উপস্থিত বক্তৃতাসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় ১ম ও ২য় স্থান অধিকার করেছে একাধিকবার।
উল্লেখ্য : অনিকা হক মায়িশা’র বড় ভাই ফাহমিদ হক শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত ও ছোট ভাই তাহমিদ হক রামসুন্দর অগ্রগামী উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণীতে পড়ালেখা করছে।

Related posts