September 25, 2018

বড়ো ভূমিতে ভূমি স্বত্ত্ব হারাবে অবড়োরাঃ রাজ্য সরকারকে স্থিতি স্পষ্ট করার আহ্বান সাংসদ শরনীয়ার।

গোয়াহাটী ২৮ ফেব্রুয়ারীঃ অসমের বড়োল্যাণ্ড টেরিটরিয়্যাল অটোনমাস ডিষ্ট্রিক্ট (বিটিএডি) তে নতুন করে হিংসার দাবানল প্রজ্বলিত হতে চলেছে।  বিটিএডি প্রধান হাগ্রামা মহিলারী ভূমি আইন সংশোধন বিলে আজ স্বাক্ষর করলে বিটিএডি এলাকায় বসবাস করা অবড়োরা ভূমি ভোগ দখল আইনের আওতায় তাদের ভূমি ক্রয় বিক্রয়ের অধিকার হারাচ্ছেন। এনিয়ে তীব্র অসন্তোষ দেখা দিয়েছে অবড়োদের মধ্যে। অবড়োদের সংগঠনগুলো আজ সন্মিলিত হয়ে রাস্তায় বেরিয়ে এসে বিক্ষোভ দেখায়। তাঁরা হাগ্রামা মহিলারী মুর্দাবাদ ধ্বনিতে আকাশ-বাতাস মুখরিত করে এবং শহরের কেন্দ্র বিন্দুতে পৌছে মহিলারীর কুশপুতুল দাহ করে।

তবে হাগ্রামা তাঁর প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন যে তিনি ভূমি সংশোধন বিলে নতুন কোন সিদ্ধান্ত নেননি; বড়োভূমি চুক্তিতে ভূমি বিক্রি বা হস্তান্তর সম্পর্কে যে নীতি নির্দেশিকা রয়েছে, তারই বাস্তবায়ন করছেন মাত্র।

এদিকে, বিটিএডির সাংসদ হীরা শরণীয়া রাজ্য সরকারকে বড়োভূমিতে ভূমি বিক্রি বা হস্তান্তর নিয়ে স্থিতি স্পষ্ট করতে আহ্বান জানান।  তিনি বলেন, বড়ো ভূমিতে সবার সমান অধিকার থাকতে হবে; অবড়োরা ভূমির অধিকার হারালে গোটা বড়োল্যাণ্ড এলাকায় আবার দাবানল জ্বলে উঠবে। তিনি বড়োল্যান্ডকে ৭০ঃ৩০তে ভাগ করার আহ্বান জানান।  তাঁর মতে, বড়োল্যাণ্ডে মাত্র ৩০ শতাংশ বড়ো জনগন বসবাস করেন। বাকি ৭০ শতাংশ মানুষ হ’ল নানা অবড়ো সম্প্রদায় ভুক্ত।  কংগ্রেস সরকার হাগ্রামার সাথে মিলে রাজনৈতিক মুনাফা তুলতে বড়ো এলাকায় অবড়ো ৭০ শতাংশ মানুষের ভূমি অন্তর্ভুক্ত করেছে।

এম বি ফয়েজ/গোয়াহাটীbodoland-protestAFp

Related posts