November 19, 2018

বড়াইগ্রামের ৪ যুবক ৮ দিন ধরে নিখোঁজ

dনাটোরের বড়াইগ্রামের কায়েককোলা গ্রাম থেকে ৮ দিন আগে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে অস্ত্রের মুখে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়া ৪ যুবকের সন্ধান মেলেনি। এ ব্যাপারে নিখোঁজ রফিকুল ইসলামের বাবা আজ বৃহস্পতিবার থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

জানা যায়, গত ২ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কায়েমকোলা গ্রামের আতাউর রহমান ফলের ছেলে সবজিবিক্রেতা রফিকুল ইসলাম ভুট্টুকে (৩৬) তার দোকান থেকে, একই গ্রামের মসলেম উদ্দিনের ছেলে আতিকুর রহমান (৩৫) ও মেকার হোসেনের ছেলে মিঠুকে (৩৫) এবং ৩ ফেব্রুয়ারি ভোরে ঘুমন্ত অবস্থায় নিজ বাড়ি থেকে আব্দুল জব্বারের ছেলে কাঠমিস্ত্রি আব্দুল গাফফারকে (৩৪) ১০-১২ জন লোক উঠিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় পরিবারের সদস্যরা বাধা দিলে তারা নিজেদেরকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পরিচয় দিয়ে অস্ত্র উঁচিয়ে হুমকি দেয়। পরে অটোভ্যানে করে তাদেরকে আহম্মেদপুর বাসস্ট্যান্ডের কাছে নিয়ে গাড়িতে উঠিয়ে চলে যায়।

পরে তাদের পরিবারের সদস্যরা নাটোর র‌্যাব কার্যালয়, নাটোর ও বড়াইগ্রাম থানায় যোগাযোগ করলে তারা এমন কাউকে আটক করেননি বলে জানান।

আজ বৃহস্পতিবার সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গেলে আব্দুল গাফ্ফারের মা রিমলা বেগম কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমার ছেলে যদি কোনো অপরাধ করে থাকে, তাহলে তাকে আদালতে সমর্পণ করা হোক। কিন্তু ৮ দিন ধরে তার কোনো খোঁজ পাচ্ছি না। আমি আমার ছেলেকে জীবিত ফেরত চাই।

রফিকুল ইসলাম ভুট্টুর বাবা আতাউর রহমান চোখের পানি মুছতে মুছতে বলেন, ‘আমার ছেলের নামে থানায় মামলা তো দূরের কথা একটি জিডিও নেই। বিনা অপরাধে সবজির দোকান থেকে সবার সামনে থেকে তাকে তুলে নিয়ে গেছে। যে বাহিনীই তাকে নিয়ে যাক, আমার ছেলেকে কোর্টের কাছে হস্তান্তরের জন্য তাদের কাছে মিনতি করছি।’

এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানার ওসি শাহরিয়ার খান বলেন, তাদেরকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য বা অন্য কেউ নিয়ে গেছে তা জানা নেই। জিডির ভিত্তিতে তদন্ত করা হবে।

Related posts