April 21, 2019

বিশ্বনাথে সরকারি উন্নয়ন কাজে বাধাঁ: দু’পক্ষের উত্তেজনা

IMG_20190124_190924বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে আজ বৃহস্পতিবার সরকারি একটি রাস্তার উন্নয়ন কাজে বাধাঁ প্রদান করে কাজ বন্ধ করে দিয়েছে একটি পক্ষ। এনিয়ে দু’পক্ষে টানটান উত্তেজনা ছিল। আজ বৃহস্পতিবার দশঘর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এমন পরিস্থিতি খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সরকারি কাজে বাঁধা প্রদান করা যাবে বলে উন্নয়নকাজে সহযোগিতাকারীদের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। কাল শূক্রবার উভয় পক্ষকে নিয়ে থানা পুলিশ সমঝোতা বৈঠক করবেন বলে পুলিশ জানায়।

জানাগেছে, দশঘর-মাছুখালী-জামে মসজিদ (দশঘর লিংক) পর্যন্ত সরকারি বরাদ্ধের ৫০০ মিটার পাকা রাস্তার কাজ করতে যান ঠিকাদার। এসময় ও দশঘর গ্রামের কয়েক শতাধিক লোকজন কাজের উদ্বোধনে অংশ নিলে দশঘর গ্রামের আব্দুর রশীদ, বাদশা মিয়া, রফিক মিয়ার লোকজন কাজ করতে বাঁধা প্রদান করেন। এক পর্যায়ে উত্তেজনা বিরাজ করলে থানার এসআই দেবাশীষ এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

দশঘর গ্রামের চৌ পঞ্চায়েতের সভাপতি সুফি মিয়া, গ্রামের মুরব্বী ইয়াওর মিয়া, সাইস্থা মিয়া, দুলাল মিয়া, তৌরিছ আলী ও দশঘর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন বলেন, দশঘর ইউনিয়ন বিএনপি সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন মেম্বার দশঘর-মাছুখালী-দশঘর জামে মসজিদ পর্যন্ত রাস্তা পাকাকরণের কথা বলে গ্রামের প্রবাসীদের কাছ থেকে ৮ লাখ টাকা চাঁদা নেন। কিন্তু উন্নয়ন কাজ করাতে পারেননি তিনি। পরবর্তীতে গ্রামের স্বার্থে হাজী রুহেল মিয়া ও জুবেল মিয়ার সহযোগিতায় রাস্তার পাকাকরণ কাজ আসে। রাস্তার কাজ আসার পর কাজ করতে গেলে ঠিকাদারকে বাধাঁ প্রদান করেন আবুল হোসেন মেম্বারের লোকজন। এভাবে বেশ কয়েকবার সরকারি কাজে বাঁধা দিয়ে আসছেন আবুল হোসেন মেম্বার। ফলে সরকারের উন্নয়ন কাজ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন এলাকাবাসি। আজ সকালে গ্রামের কয়েক শতাধিক লোকজন রাস্তার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করতে গিয়েও বাঁধার সম্মুখিন হয়েছেন এলাকাবাসি।

এ ব্যাপারে দশঘর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন মেম্বার বলেন, আমার বিরুদ্ধে কিছু লোকজন মান ক্ষুন্ন করতে উঠে পড়ে লেগেছেন। তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা বানোয়াট, উদ্দেশ্য প্রনোদিত। সরকারের কোন উন্নয়ন কাজে বাঁধা দেয়ার মন-মানসিকতা আমাদের নেই। আমরা চাই উন্নয়ন হউক। কিন্তু ১ কিলোমিটার রাস্তার টেন্ডার হয়ে বর্তমানে ৫০০ মিটার রাস্তার কাজ হওয়াতে গ্রামের মুরব্বীয়ানদের মনে কষ্ঠের সৃষ্ঠি হয়েছে। আর কিছু নয়।

IMG_20190124_190958এদিকে আজ সকালে জুবেল মিয়ার বাড়িতে দশঘর-মাছুখালী-দশঘর জামে মসজিদ পর্যন্ত রাস্তা পাকাকরণের উদ্বোধনের লক্ষ্যে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

দশঘর গ্রামের চৌ পঞ্চায়েতের সভাপতি সুফি মিয়ার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন এবং উপস্থিত ছিলেন নুনু মিয়া, হাজি মো. সফিক মিয়া, আব্দুর রহিম, নূরউদ্দিন, আবুল কালাম, রহিমউদ্দিন, সায়েস্তা মিয়া, আব্দুল মালিক, চমক আলী, আছকর আলী, তাজউদ্দিন, সাহাবউদ্দিন, আকিল শাহ, ফজলু মিয়া, নাছির মিয়া, দুলাল মিয়া, আজাদুর রহমান, বাবুল হোসেন, আওলাদ মিয়া, মোজাহিদ আলী, লয়লুছ মিয়া, শুকুর আলী, জমসেদ আলী, টিপন মালাকার, নাজিমউদ্দিন, রুনু মিয়া, রকিব আলী, ইকবাল হোসেন, গোবিন্দ, বকুল, রুকন মিয়া, ইমরান আহমদ, দুলু মিয়া, হাফিজুল ইসলাম, আতাউর, কামরুল, হারুন মিয়া, পরিমল বাবু, মখলিছ মিয়া, জতি, নাঈম হোসেন, মুন্না মিয়া, রায়, পরেশ বৈদ্য, সেবুল মিয়া, ঝুনু মিয়া, জাকির হোসেন, লায়েক আহমদ, আব্দুল মালেক, বাবলা মালাকার, সুজ্জাদ আহমদ, জাকারিয়া, পিংকু মল্লিক, আনন্দ সরকার, কিবরিয়া আহমদ, জামাল, তুরণ মিয়া, তারুণ মিয়া, ইকবাল, নির্মল, সেলিম, সালিক মিয়া, আব্দুল আহাদ, তাহির আলী, নজির আলী, রুহুল আমিন প্রমুখ।

সভায় বক্তরা বলেন-এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে সরকারি কাজে সহযোগিতা করে আসছি। বর্তমানে আমাদের গ্রামের রাস্তার উন্নয়নেও সরকারের পাশে থেকে সহযোগিতা করছি এবং ভভিষৎতেও করব।

Related posts