November 19, 2018

বিশ্বনাথে সখের বসে গরুর খামার করে স্বাবলম্বী ইউপি সদস্য ওদুদ

20631522_1667173233324610_732176006_n

মো. আবুল কাশেম, বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার অলংকারি ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ওদুদ মিয়া গরুর খামার দিয়ে এখন স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছেন। গত ১২ বছর আগে এ খামার স্থাপন করে আজ প্রায় তিনি অর্ধকোটি টাকার মালিক। গরু পালনের শখ চিরদিনের মতো ধরে রাখতে ছোট গরুর-খামার দেখাশোনা ও পরিচর্যা করেন ওদুদ মিয়া। তার এ সাফল্য আশপাশের এলাকার বেকার যুবকদের ও স্বাবলম্বী হওয়ার পথ দেখিয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার অলংকারি ইউপি সদস্য ওদুদ মিয়া (৩৮) গত ২০০৫ সালে সামান্য পুঁজি নিয়ে বাড়িতে তার নিজস্ব ভুমির ওপর স্থাপন করেন এ ফার্ম। বর্তমানে এ ফার্মে তিনি ছাড়াও আরো ৩জন কর্মচারী সার্বক্ষণিকভাবে ফার্মে পরিচর্যা করে থাকেন। দিন-রাত পরিশ্রমের মাধ্যমে এ ফার্মের পরিধিও বেড়েছে। প্রায় ৫ লাখ টাকায় ১৩টি গরু নিয়ে এ ফার্ম চালু করেন। ক্রমান্বয়ে এ ফার্মে গরুর সংখ্যা ৫০টি চাড়িয়ে যায়। এভাবে তিনি গত ১২ বছরে এ ফার্ম দিয়ে প্রায় অর্ধকোটি টাকার মালিক। দীর্ঘদিন ধরে গরুর খামার করে আসছেন। এতে অনেক লাভবানও হয়েছে ওদুদ মিয়া। শখের বসে খামার করে আজ তিনি স্বাবলম্বী।

ওদুদ মিয়া জানান, চাকরি না করে এবং বিদেশে পাড়ি না দিয়ে তিলে তিলে গড়ে তোলেন এ ফার্ম। তার মতে, লাখ লাখ টাকা খরচ করে সমাজ-সংসার ফেলে বিদেশে না গিয়ে ওই টাকা বিনিয়োগ করে দেশে বসেই বেকারদের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি টাকা উর্পাজনসহ স্বাবলম্বী হওয়া যায়। আর সরকারি যদি কোন সহযোগিতা পাই তাহলে ব্যবসাটা আরো ভালভাবে করতে পারবো।

তিনি বলেন, প্রায় ১০-১২ বছর পূর্বে তিনি ৫লাখ টাকা নিয়ে গরুর খামার করি। এখন খামারে প্রায় ৩৫ লাখ টাকা গরু রয়েছে। ইতি মধ্যে তিনি খামার করে প্রায় ১৫ লাখ টাকা আয় করেছেন বলে জানান।

স্বপ্ন ছিল আমি একদিন বড় গরুর খামার করব, তাই সামান্য টাকা দিয়ে ১৩টি গরুর কিনে গরু খামার শুরু করি। এখন স্বপ্ন সত্যি হয়েছে খামারে প্রায় ৩৫ লক্ষ টাকার গরু রয়েছে।

Related posts