March 23, 2019

বিশ্বনাথে লুট হওয়া মালপত্র পাওয়া গেল মাদ্রাসায়!

IMG_20190215_220108বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথের উদয়পুরে প্রতিপক্ষের হামলায় ঝুনুর আলী তার ছেলে ও পুত্রবধুসহ একই পরিবারের ১০জনকে পিটিয়ে আহত করা হয়। সেই সাথে গ্রামের টিনসেডের দোকানঘর ভাংচুর করে গুড়িয়ে দেওয়া হয় এবং প্রায় ১লাখ ৮০হাজার টাকার মালপত্র লুটপাট করা হয়। এঘটনার পরদিন ঝুনুর আলীর বড় ভাই জোনাব আলী বাদি হয়ে ৩২জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেন (মামলা নং ৪)। মামলার প্রেক্ষিতে গত রোববার ঘটনাস্থলে গিয়ে উদয়পুর ইবতেদায়ী মাদ্রাসার ৫ম শ্রেণীর একটি কক্ষ থেকে দোকানের ক্যাশ বাক্স উদ্ধার করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই দেবাশীষ শর্ম্মা। আর ওই ক্যাশ বাক্স থেকে নগদ ৪০০টাকা ও ৫০০টাকা মূল্যের কিছু পটেটো ও চানাচুরের প্যাকেট উদ্ধার করেন তিনি।

জানাগেছে, দীর্ঘদিন থেকে উদয়পুর গ্রামের ঝুনুর আলী পক্ষ ও একই গ্রামের কাজী আব্দুল মুকিদ পক্ষের মধ্যে পূর্ব বিরুধ চলছিল। ৬ ফেব্রুয়ারি ভোরে ওই পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে ঝুনুর আলী পক্ষের উপর হামলা চালান আব্দুল মুকিদ পক্ষ। হামলায় ঝুনুর আলী, তার ছেলে চেরাগ আলী, নূর আলী, চেরাগ আলীর স্ত্রী সেলিনা বেগসহ ১০জন আহত হন। হামলার পশাপাশি গ্রামের দোকানঘর ভাংচুর করে গুড়িয়ে দেওয়া হয় এবং ১লাখ ৮০হাজার টাকার মালপত্র লুট করা হয়। ঝুনুর পক্ষের দাবির প্রেক্ষিতে প্রতিপক্ষ গ্রামের মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুল মুকিদ ওই মাদ্রাসায় লুট করা দোকানের মালপত্র রাখেন। আর থানা পুরিশ তল্লাশি করে নগদ ৪০০ টাকা এবং ৫০০টাকার মালপত্র উদ্ধার করেন।

মালপত্র উদ্ধারের বিষয়টি স্বীকার করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই দেবাশীষ শর্ম্মা বলেন, আসামি গ্রেফতার পক্রিয়া অব্যাহত আছে।

Related posts