August 17, 2018

বিশ্বনাথে রোদ বৃষ্টির মিশ্র আবহাওয়ায় বেড়েছে জ্বরসহ বিভিন্ন রোগ

weather-2মো. আবুল কাশেম, বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে একসাথে রোদ-বৃষ্টি বিরাজ করছে ঠান্ডা ও গরমের মিশ্র আবহাওয়া। প্রতিবছর বর্ষার দু’মাস অথাৎ আষাঢ়-শ্রাবণে এ উপজেলাসহ সারাদেশে এমন আবহাওয়া বিরাজ করছে। ফলে দেখা দেয় সর্দি-কাশি ও জ্বরসহ বিভিন্ন রোগ।

উপজেলার স্থানীয় হাসপাতাল ও জেলার কয়েকটি ক্লিনিকে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বর্ষার মাঝামাঝি সময়ে এসে কখনো রোদের ভ্যাপসা গরম আবার কখন মেঘের ঠান্ডা হাওয়া এক সঙ্গে এমন মিশ্র আবহাওয়া বিরাজ করায় প্রতিদিনই সর্দি-কাশি ও জ্বরে আক্রান্ত রোগীরা ভিড় জমাচ্ছেন হাসপাতাল ও সিলেটের ক্লিনিকগুলোতে। তবে আক্রান্তদের মধ্যে শিশু ও বৃদ্ধদের সংখ্যা তুলনামূলক একটু বেশি।

স্থানীয় সাংবাদিক বদরুল ইসলাম মহসিন জানিয়েছেন, ব্যাবসা গরম আর ঠান্ডা হাওয়া এক সঙ্গে বিরাজ করায় বর্তমানে উপজেলাজুড়ে সর্দি-কাশি ও জ্বরে আক্রান্তের হিড়িক পড়েছে। একজন আক্রান্ত হলে পরিবারের কোন সদস্যই রেহাই পাচ্ছে না। শিশুরা সহ সব বয়সের লোকজন সর্দি-কাশি ও জ্বরে আক্রান্ত হচ্ছেন।

স্থানীয় একজন চিকিৎসক ডাক্তার আকিজ উদ্দিন বলছেন, রোধ-মেঘে সৃষ্ট ঠান্ডা ও গরমে আক্রান্ত হওয়া এ ধরনের জ্বর নিয়ে শঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। এসময়ে জ্বরে আক্রান্ত হলে অধিকাংশ সময়েই আপনা আপনি কয়েকদিনের মধ্যেই ভালো হয়ে যায়। তবে জ্বর কমানোর জন্য প্রথমে দেহের তাপমাত্রা কমানোর ওষুধ প্যারাসিটামল বা এইস অথবা এন্টিহিস্টামিন জাতীয় ওষুধ কয়েকদিন খেলেই এ রোগ সেরে যায়। অনেক সময় ব্যাকটেরিয়াল সংক্রমণের লক্ষণ থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী উপযুক্ত এন্টিবায়োটিক সঠিক মাত্রায় পাঁচ থেকে সাত দিন খেতে হবে। আর রোগী ব্যক্তির মাথায় বেশী করে পানি ঢালা দিতে হবে।

Related posts