June 22, 2018

বিশ্বনাথে মাদরাসায় রহস্যজনক চুরি!

IMG_20180611_204811_982বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে মিয়ার বাজার হযরত শাহচান্দ শাহকালু আলিম মাদরাসায় চুরির অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রোববার রাতে তারাবিহ নামাজ চলাকালিন সময়ে এ ঘটনা ঘটে। তবে, ঘটনাটি রহস্যজনক মনে করছেন অনেকেই। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
মাদরাসা কর্তৃপক্ষ অভিযোগ করেন, রোববার রাতে তারাবিহ নামাজ চলাকালিন সময়ে অফিস কক্ষের ছোট্ট ভেন্টিলেটর ভেঙ্গে চোরেরা হিসাবের ফাইল, ডায়েরী ও একটি ল্যাপটপ নিয়ে গেছে। এসময় অফিসের একটি স্টিল ও আরেকটি কাঠের আলমিরা খোলা অবস্থায় পাওয়া যায়। যার পাশের টেবিলেই পড়েছিল চাবি। ‘বাইরে থেকে অফিস বন্ধ থাকাস্বত্ত্বেও যে এত ছোট্ট ভেন্টিলেটর দিয়ে চোর কিভাবে প্রবেশ করলো, সেটাই বড় বিস্ময়!’ তবে, মাদরাসা কর্তৃপক্ষের এমন অভিযোগ রীতিমত রহস্যের সৃষ্টি করেছে।
এলাকার অনেকেই চুরির ঘটনাকে রহস্যজনক বলে মনে করছেন। তারা বলেন, অফিসের এত ছোট্ট ভেন্টিলেটর দিয়ে কারো প্রবেশ করা সম্ভব নয়। তারা প্রশ্ন তুলেছেন চোরেরা মাদরাসার ফাইল ও ডায়েরী দিয়ে করবেটা কি? এছাড়াও প্রতিটা আলমিরা খোলার জন্যে চোরেরা চাবির সন্ধান পেল কিভাবে ? কেউ কেউ এটাকে সাজানো নাটক বলে অভিহিত করে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে এর মূল হোতাকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবী জানান।
মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুল মোক্তাদির খান বলেন, চুরির ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরীর প্রস্তুুতি নিচ্ছি।
ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আবদুল গফুর মেম্বারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করলেও কি কি চুরি হয়েছে বলতে পারেননি।
এ বিষয়ে কথা হলে ঘটনাস্থলে যাওয়া বিশ্বনাথ থানার এসআই কায়েমুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি রহস্যজনক। বাহির থেকে ভেতরে চোর প্রবেশের কোন আলামত পাওয়া যায়নি।
থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, চুরি হলে মামলা দিতে হয়। মামলা হলে বিষয়টি খতিয়ে দেখব।

Related posts