April 21, 2019

বিশ্বনাথে ব্যাংক ম্যানেজারের অশ্লীল আচরণ : লাঞ্চিত সাংবাদিক

9-768x473বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি :: বিশ্বনাথ উপজেলা নতুনবাজারস্থ জনতা ব্যাংক শাখার ম্যানেজার মাধব রাম পালের দাপটে সাংবাদিকসহ সাধারণ মানুষ আতঙ্কিত। বয়স্ক ভাতা নিতে আসা ১১০ বছরের বৃদ্ধা তাজিবুন বেগম ও ৮৫ বছর বয়সি মহিলা রহিমা বেগম প্রায় দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাড়িয়ে থাকাবস্থায় অজ্ঞান হয়ে পড়লে একজন সাংবাদিক তাদের সহায়তায় এগিয়ে আসেন। বৃদ্ধ দুই মহিলার বাড়ি লামাকাজি ইউনিয়নের মির্জারগাঁও গ্রামে। তিনি বৃদ্ধ দুইজন মহিলাকে নিয়ে ব্যাংক ম্যানেজারের সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি অশ্লীল ভাষায় কটুক্তি ও খারাপ আচরণ ও এক পর্যায়ে সাংবাদিককে লাঞ্চিত করেন।

ম্যানেজার সাংবাদিককে ক্ষমতার দাপট দেখান। তার পর বৃদ্ধ মহিলাদের উদ্দেশ্যে বলেন ২/৩ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়ে ভাতা নিতে না পারলে ভাতায় নাম দেয় কেন? আমি তাদের খাই না এবং তাদের চাকুরিও করিনা যে তাদের কথা শুনতে হবে। এসময় উক্ত সাংবাদিক মানবিক বিবেচনায় বৃদ্ধ মহিলাদের ভাতা দেয়ার সুপারিশ করিলে তিনি সাংবাদিককে তার ক্ষমতার দাপট দেখান। এক পর্যায়ে উক্ত সাংবাদিক অপমানিত হয়ে চলে আসেন। বিষয়টি সাংবাদিক মহল জানতে পেরে বিস্ময় প্রকাশ করেন। ঘটনাটি ঘটেছে ২ এপ্রিল মঙ্গলবার। পরদিন বুধবার ও বৃহস্পতিবার অনেক বয়স্ক ভাতাপ্রাপ্ত অসহায় নিরিহ পুরুষ মহিলাদের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। যে কারনে বয়স্ক লোকজন ব্যাংকে আসা যাওয়া করতে অসুস্থ হয়ে পড়েন তেমনি প্রাপ্ত টাকার অধিকাংশই আসা যাওয়ায় খরচ হয়ে যাচ্ছে। ম্যানেজার মাধব রাম পাল এই শাখায় যোগদানের পর থেকে মানুষের সাথে খারাপ আচরনের বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। ব্যাংক গ্রাহক, ঋন গ্রহীতাগণ নানা কারনে ব্যাংকে আসলে রাখাপ আচরন করেন। এমনকি প্রবাসিরা রেমিটেন্স পাঠানোসহ বিভিন্ন কারনে তার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বিরক্ত হয়ে ফোন রেখে দেন। একজন সরকারি কর্মকর্তার এমন আচরনে সচেতন মানুষ ও সাংবাদিক সমাজ চরম ভাবে ক্ষুব্ধ। অদ্য ৪ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দৈনিক ইনকিলাবের বিশ্বানাথ প্রতিনিধি আব্দুস সালাম বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেটের নির্বাহি পরিচালকির নিকট একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এই অভিযোগের কপি বাংলাদেশ ব্যাংকে জিএম ও জনতা ব্যাংক প্রিন্সিপাল অফিস আম্বর খানা কার্যালয়ে গিয়ে দাখিল করেন।

জনতা ব্যাংক প্রিন্সিপাল অফিসের জেনারেল ম্যানেজার আসাদুজ্জামান অভিযোগ পত্রটি পেয়েছেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়ে, এমন আচরনে দু:খ প্রকাশ করেন এবং শীঘ্রই তদন্ত করে কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহন এবং যাহাতে ভাতা ভোগী লোকজন সহজে ভাতা পেতে পারন সেই ব্যবস্থার আশ্বাসও প্রদান করেন।

জনতা ব্যাংক বিশ্বনাথ শাখার ম্যানেজার মাধব রাম পাল বলেন-আমার বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ মিথ্যা। তিনি বলেন-একজন গৃহিতাকে যতটুটু সেবা দেয়ার সব সময় সাধ্যমত সেবা দিয়ে থাকি। গতদিন সাংবাদিকের সাথে লাঞ্চিতের মত কোন ঘটনা হয়নি।

Related posts