September 21, 2018

বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে মহিলা’সহ আহত ৭

photo (3)মো. আবুল কাশেম, বিশ্বনাথ প্রতিনিধি : : সিলেটের বিশ্বনাথে রাস্তা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে মহিলা’সহ ৭ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (১৯সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের বিলপাড় গ্রামের মনফর আলী ও মকরম আলী গংদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন- বিলপাড় গ্রামের মৃত আনঞ্জুব আলীর পুত্র মনোহর আলী (৭৫), মনফর আলীর স্ত্রী জুলেখা বেগম (৫০), ছেলে রুহেল আহমদ (২৬), জুয়েল আহমদ (২৪), মেয়ে সুবেলা বেগম (১৭)। বাকি আহতদের নাম জানাযায়নি। গুরুতর আহতদের সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানাগেছে।সংঘর্ষের সময় বসতঘর ভাংচুর করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে একটি পক্ষ।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বাড়ির রাস্তা নিয়ে মনফর আলী ও মকরম আলী গংদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে মঙ্গলবার সকাল ৭টায় কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে দু’পক্ষের লোকজন সংঘর্ষের জড়িয়ে পড়েন।

এব্যাপারে মনোহর আলীর পুত্র রুহেল আহমদ বলেন, বাড়ির রাস্তা নিয়ে মকরম আলীর সাথে আমাদের বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে আজ (মঙ্গলবার) সকালে তারা (মকরম) আমার পিতার উপর অতর্কিতভাবে হামলা করে। আমার চিৎকার শুনে এগিয়ে আসলে তারা আমাদের উপরও হামলা করে এবং আমাদের বসতঘর ভাংচুরে করে। হামলায় আমি, আমার পিতা, মা , ভাই ও বোন আহত হয়েছি।

মকরম আলীর পুত্র আব্দুল কাদির তাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সঠিক নয় দাবি করে বলেন, গতকাল সোমবার আমার চাচাতো ভাই জয়নাল মিয়া জমিতে কৃষি ক্ষেতে গেলে জমির আইল নিয়ে মনোহর আলী গংদের সাথে তার কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে তারা (মনোহর) জয়নালকে মারধর করে এবং বাড়ির রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে নিষেধ করে। আজ (মঙ্গলবার ) সকালে জয়নাল ও তার মা’কে রাস্তায় একা পেয়ে তারা (মনোহর) তাকে মারধর করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে খাজাঞ্চী ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন সিদ্দিকী বলেন, বিষয়টি সালিশের মাধ্যমে নিস্পত্তির লক্ষ্যে আমরা চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছি।

বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুদ্দোহা বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

Related posts