December 11, 2018

বিশ্বনাথে তাহির আলী উচ্চ বিদ্যালয়ে ফরম পূরনে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ

taher-aliবিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে বিশ্বনাথ লালটেক আলহাজ্ব তাহির আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে কোনো প্রকার রশিদ ছাড়াই অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এছাড়া বোর্ডের নিয়ম অনুযায়ী ফরম ফ্রির সঙ্গে বকেয়া বেতন, কোচিং, মডেল টেস্টের নামে বাড়তি কোনো টাকা আদায় করা যাবে না। বকেয়া বেতন আদায় করতে হলে নির্বাচনী পরীক্ষার আগে করে নিতে হবে। কিন্তু এই নির্দেশনা মানা হচ্ছে না তাহির আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা।

অতিরিক্ত টাকা দিতে না পারায় দরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীদের ফরম পূরণ করা হচ্ছে না। সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কেন্দ্র ফি সহ মানবিক বিভাগে এক হাজার ৪৪৫ টাকা, বিজ্ঞানে এক হাজার ৬৬৫ টাকা ও ব্যবসায় শিক্ষায় এক হাজার ৬৭০ টাকা নির্ধারণ করেছে।

কিন্তু এই বিদ্যালয়ের মানবিক বিভাগে তিন হাজার সাত শত টাকা এবং বিজ্ঞান বিভাগে তিন হাজার আট শত টাকা নিচ্ছে বলে জানিয়েছেন অভিভাবকরা।

এ ছাড়া শিক্ষার্থীর কাছ থেকে দুই হাজার ৩০০ টাকা করে কোচিং ফি বলে নেওয়া হয়েছে।

এই বিদ্যালয়ের শিক্ষক আজম আলী সাংবাদিকদের কাছে বলেন, কোচিং এবং নির্বাচনী পরিক্ষার ফি বাবদ তিন হাজার ৮০০ ও তিন হাজার ৭০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে এর বাহিরে কোনো টাকা নেওয়া হচ্ছে না।

প্রধান শিক্ষক প্রদীপ কুমার চৌধরী অভিভাবকদের বলেন দুই হাজার তিনশত টাকা করে পরীক্ষার ফরম পূরণের জন্য নেওয়া হচ্ছে। বাকি টাকা কোচিং ফি। অভিভাবকদের কাছ থেকে জানা যায় এর আগে প্রতি মাসে কোচিং ফি ২৫০ টাকা করে দিয়েছেন অভিভাবকরা।

অভিভাবক সূত্রে জানা যায়, আলহাজ্ব তাহির আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা এত কিছুর পরও নির্দেশনা মানা হচ্ছে না তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্তা নিতে প্রশাসনের হস্থক্ষেপ কামনা করছেন।

এ বিষয়ে বিশ্বনাথ উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বলেন, বোর্ডের নির্ধারিত এক হাজার ৬৬৫ টাকার মধ্যে কেন্দ্র ফি অন্তর্ভুক্ত করা এর বাহিরের অতিরিক্ত ফি আদায়ের ব্যাপারে তিনি খোঁজ নিচ্ছেন বলে জানান।

Related posts