September 25, 2018

বিশ্বনাথে জাতীয় পাটিতে চাঙ্গাভাব! কর্মীসম্মেলন ২১ অক্টোবর

index-2মো. আবুল কাশেম, বিশ্বনাথ প্রতিনিধি::  বিশ্বনাথ উপজেলা জাতীয় পার্টির কমিটি দীর্ঘদিন ধরে নেই। কমিটি বিহীন ছিল বিশ্বনাথ উপজেলা জাপা। অবশেষে বিশ্বনাথ উপজেলা জাতীয় পার্টির কমিটি গঠন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আগামী ২১ অক্টোবর উপজেলা জাতীয় পার্টির কর্মী সম্মেলন অনুষ্টিত হবে। এতে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। নেতৃত্ব পেতে মাঠ পর্যায়ে নেতাকর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় ও জেলা পর্যায়ে জাপার শীর্ষ নেতাদের কাছেও নিজেদের অবস্থান তুলে ধরতে সচেষ্ট পদপ্রাপ্তি নেতারা। আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর উপজেলা জাপার কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ওই সম্মেলনে জাপার কমিটি ঘোষনা হওয়ার কথা রয়েছে বলে দলের একাধিক নেতা জানিয়েছেন। তবে পূর্নাঙ্গ কমিটি না হয়ে আহবায়ক কমিটি গঠিত হবে বলে দলীয় সূত্রে জানাগেছে। ইতি মধ্যে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির সম্মেলন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অব্যাহত রয়েছে। কর্মীসম্মেলনকে সফল করার লক্ষে উপজেলা জাতীয় পার্টি তৃণমুল নেতাকর্মীর সঙ্গে মতবিনিময় সভা করে আসছে। ফলে বর্তমানে জাতীয় পার্টিতে চাঙ্গাভাব দেখা দিয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা জাতীয় পার্টির কমিটি বিহীন অতিবাহিত হলেও কমিটি ঘোষণা না হওয়া হতাশায় ছিল জাপা নেতাকর্মীরা। হতাশ হয়ে পড়েছিলেন পদ-প্রত্যাশী নেতারা। এ নিয়ে দলের ভিতর ও বাহিরে চলছিল নানা আলোচনা-সমালোচনা। অবশেষে চলিত মাসের শেষের দিকে উপজেলা জাপার কমিটি ঘোষনা হবে এমন খবরে দলীয় নেতাকর্মীর মধ্যে প্রাণচঞ্চলতা ফিরে এসেছে। তবে জাপার কমিটি ঘোষনা হলে কারা আসছে নেতৃত্বে? এনিয়ে চলছে উপজেলা জাপার নেতাকর্মীদের ব্যাপক আলাপ-আলোচনা।

উপজেলা জাপার কমিটির আহবায়ক পদে উপজেলা জাপার সাবেক সভাপতি এসএম আরশ আলী বাবলু, সাবেক ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক সিতাব আলী, যুগ্ম-আহবায়ক মনোহর আলী, এমএ রব, বিশ্বনাথ ইউনিয়ন জাপার আহবায়ক জয়নাল আহমদ, জাপা নেতা সাইদুর রহমান আলোচনায় রয়েছেন। তাদের নিয়ে স্থানীয় সংগঠনের ভিতরে চলছে স্নায়ুযুদ্ধ। কমিটির আহবায়ক হতে তাদের সাধ্যমতে সিনিয়র নেতাদের কাছে তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন। রাত-দিন রাজপথে কর্মীদের নিয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন কার্যক্রম। কিন্তু তারপরেও ওই নেতার মধ্যে দলের জন্য কে কতটা সক্রিয় ও নিষক্রীয় রয়েছেন এ নিয়ে চলছে নানা হিসাব-নিকাশ।

দলীয় ও বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে, ২০১৫সালের ২৪ মার্চ উপজেলা জাপা নেতা আবু বক্কর সিদ্দিকী কে আহবায়ক ও সিতাব আলীকে যুগ্ম-আহবায়ক করে ১০৫ সদস্য বিশিষ্ট উপজেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটি গঠনের পর থেকে বিশ্বনাথ জাপা দু-ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে। কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির যুগ্ম-মহাসচিব, সিলেট ২ আসনের সাংসদ ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া ও সিলেট জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক আহবায়ক আবদুল্লাহ সিদ্দিকী মধ্যে দন্ধের সৃষ্টি হয়েছে। সাবেক জেলা জাতীয় পার্টির কমিটি গঠনের পর তাদের এই দন্ধ সৃষ্টি হয়। এর ফলে বিশ্বনাথে জাতীয় পার্টি দুটি বলয়ের সৃষ্টি হয়েছে। এমপি এহিয়া গ্রুপের নেতৃত্ব দেন জাপা নেতা সিতাব আলী ও আবদুল্লাহ সিদ্দিকীর গ্রুপে নেতৃত্ব দেন আরশ আলী বাবলু। এভাবে চলে উপজেলা জাপার কার্যক্রম। অবশেষে গত বছরের ৪ সেপ্টেবর উপজেলা জাতীয় পার্টির দু’গ্রুপে বিরোধ নিস্পত্তি হয়েছে। ফলে দলীয় গ্রুপিং ভেঙে এক হয়ে যায় জাতীয় পার্টি। ওইদিন উভয় গ্রুপে নেতাদের নিয়ে বৈঠকে করেন জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আব্দুল্লাহ সিদ্দিকী। বৈঠকে তিনি নেতৃবৃন্দের মতামতের ভিত্ত্বিতে উপজেলা জাতীয় পার্টির উভয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন। বর্তমানে জাতীয় পার্টিতে কোনো গ্রুপিং নেই। কিন্তু এরপর পর থেকে জাতীয় পার্টি কমিটি বিহীন হয়ে পড়ে।

এব্যাপারে উপজেলা জাপার সাবেক ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক সিতার আলী বলেন, দলের কমিটি না থাকায় কিছুটা ঝিমিযে পড়েছেন নেতারা। কমিটি হলে জাপা প্রাণ ফিরে পাবে। তবে ২১ অক্টোবর জাতীয় পার্টির কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। আশাকরি জেলা নেতৃবৃন্দ ত্যাগী নেতাদের দিয়ে কমিটি ঘোষনা করবেন।

উপজেলা জাপার সাবেক সভাপতি এসএম আরশ আলী বাবলু বলেন, দীর্ঘদিন ধরে জাপার রাজনীতি সঙ্গে জড়িত। ইতি মধ্যে উপজেলা জাপার সভাপতির দায়িত্ব পালন করি। আশাকরি তৃণমূল নেতাকর্মীর মতামতে ত্যাগী নেতাদের দিয়েই কমিটি গঠিত হবে। ইতিমধ্যে সম্মেলন সফলের লক্ষে উপজেলার আটটি ইউনিয়নে প্রস্তুতি সভা অব্যাহত রয়েছে।

Related posts