July 18, 2018

বিশ্বনাথে চলাচলের রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির অভিযোগ

Picture-Rastha-Biswanath-Sylhet-09.06.2018-725x412বিশ্বনাথ  (সিলেট) প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে মানুষজন চলাচলের একমাত্র রাস্তায় প্রতিপক্ষ কর্তৃক প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিবন্ধকতার ফলে বাড়ী থেকে বের হওয়া এবং বাড়ীতে প্রবেশে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন লোকজন। এমনকি, এ থেকে রেহাই পাচ্ছেন না স্কুল পড়–য়া ছাত্রছাত্রীরাও। রবিবার উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের দ্বীপবন্ধ (বিলপার) গ্রামের পূর্বহাটিতে মনোফর আলী পক্ষ এ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছেন বলে অভিযোগ তুলেছেন একই গ্রামের মকরম আলী পক্ষ। 

জানা গেছে, বাড়ীর রাস্তা নিয়ে দ্বীপবন্ধ গ্রামের মকরম আলী ও মনোফর আলীদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধের জেরে গত বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর জমির আইল নিয়ে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এ ঘটনায় মকরম আলী পুত্র আবদুল কাদির বাদী হয়ে মনোফর আলীর পুত্র রুহেলকে প্রধান আসামী করে মামলা (নং জিআর-১৯১) দেন। এই মামলায় রবিবার আদালতে জামিন নিতে গেলে তা না মঞ্জুর করে রুহেলকে জেলহাজতে প্রেরণ করেন আদালত।

মামলার বাদী আবদুল কাদির অভিযোগ করে বলেন, আমার মামলার প্রধান আসামী রুহেলের জামিন না মঞ্জুর হওয়ায় তার পক্ষের লোকজনেরা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদের চলাচলের একমাত্র রাস্তায় কাচের বোতলের টুকরো, কাঁটাযুক্ত গাছের ডাল ফেলে রেখে এমনকি সুপারী গাছের চারা রোপন করে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে। যার ফলে আমরা প্রায় গৃহবন্ধী হয়ে পড়েছি। কাদিরের এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিশ্বনাথের কয়েকজন সংবাদকর্মী ঘটনাস্থলে গিয়ে এই প্রতিবন্ধকতার সত্যতা পান।

তবে, এটি কারো রাস্তা নয় দাবী করে মনোফর আলী পক্ষের সুহেল আহমদ মুঠোফোনে সাংবাদিকদের বলেন, প্রতিপক্ষ যে জায়গাতে প্রতিবন্ধকতার অভিযোগ তুলেছে, জায়গাটুকু মূলত আমার বাড়ীরই অংশবিশেষ। সেখানে আমি নার্সারী করেছি। গাছগুলো নিরাপদে রাখতেই কিছু শুকনো বাঁশের অংশ সেখানে ফেলে রেখেছি।

থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, এ ব্যাপারে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তসাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Related posts