September 19, 2018

বিধ্বস্ত রাশিয়ার বিমানঃ ৯২ জনের প্রাণহানির আশঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ উড্ডয়নের কয়েক মিনিটের মাথায় কৃষ্ণ সাগরে বিধ্বস্ত রাশিয়ার টিইউ-১৫৪ সামরিক বিমানের ৯২ আরোহীর প্রাণহানির আশঙ্কা প্রকাশ করেছে ক্রেমলিন। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, রোববার সকালে সিরিয়ার লাটাকিয়াগামী বিমানটির কোনো আরোহীর বেঁচে থাকার সম্ভাবনা একেবারে ক্ষীণ।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী দৈনিক ওয়াশিংটন এক প্রতিবেদনে বলছে, বিমানটি বিধ্বস্তের কিছুক্ষণের মধ্যে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জরুরি বৈঠক করেছে। প্রতিরক্ষা বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে বিমান হামলার পেছনে ‘সন্ত্রাসী’রা জড়িত কিনা সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

কমিটির চেয়ারম্যান ভিক্টর ওজারভ এক বিবৃতিতে বলেছেন, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কারণ বিমানটি রাশিয়ার সেনাবাহিনী পরিচালনা করছিল।

দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদসংস্থা আরআইএ বলছে, বিমানটি বিধ্বস্তের পেছনে সন্ত্রাসীদের জড়িত থাকার সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন তিনি।

এদিকে, গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে বিমান বিধ্বস্তের বিষয়ে অবগত করা হয়েছে। বিমানের কোনো নিরাপত্তা ত্রুটি ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখতে একটি পূর্ণাঙ্গ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
রুশ সেনাবাহিনীর বিখ্যাত গায়ক দলের ৬৪ সেনা সদস্য ছিলেন বিধ্বস্ত বিমানটিতে। সিরিয়ার লাটাকিয়ায় নতুন বছর উদযাপনের জন্য তারা যাত্রা শুরু করেছিলেন। রুশ সংবাদমাধ্যম আরটি বলছে, বিধ্বস্ত টিইউ-১৫৪ বিমানের ধ্বংসাবশেষের কিছু অংশ কৃষ্ণ সাগরের উপকূলের দেড় কিলোমিটার দূরে ৫০ থেকে ৭০ মিটার গভীরে পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, টিইউ-১৫৪ এর বিমান বিধ্বস্তের সবচেয়ে বড় ঘটনা ঘটেছিল ২০১০ সালে। ওই সময় টিইউ এর একটি বিমান বিধ্বস্তে পোল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট লেচ কাকজিনস্কি ও বেশ কয়েকজন সংসদ সদস্য নিহত হন।

Related posts