September 25, 2018

বিদ্যুৎসংযোগ দেওয়ার নামে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে উধাও!

একেএম কামাল উদ্দিন টগর,নওগাঁ প্রতিনিধিঃ  নওগাঁর আত্রাইয়ে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ দেওয়ার নামে উজ্ঝল নামে এক ব্যক্তি বিদ্যুৎ সংযোগ প্রত্যাশীদের কাছ থেকে ২ লাখ ২০হাজার টাকা  নিয়ে গা ঢাকা দিয়েছেন। উজ্জল হোসেন উপজেলার পাঁচুপুর ইউনিয়নের সাহেবগঞ্জ গ্রামের অবসর প্রাপ্ত কর্মচারী মোঃ আব্দুর রহমানের ছেলে। উপজেলার পাঁচুপুর উজান পাড়া গ্রামের আশরাফ আলী, হাসেন আলী, পারুল বিবি,রকিব,ডলার,কালাম,রুপক সহ আরো ৩০জন বিদ্যুৎ প্রত্যাশীরা জানান, পাঁচুপুর উজান পাড়ায় ২০১৪ সালে পল্লী বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য  বিদ্যুৎ লাইন টানা হয়। কিন্তু বাড়ী গুলোতে বিদ্যুৎ- সংযোগ না দেওয়ায় তাঁরা আত্রাই পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির অফিসে যোগাযোগ করতে থাকেন। এর মধ্যে ওই গ্রামের মোঃ হাছেন আলীর সংঙ্গে উজ্জলের সখ্য গড়ে তোলেন।

দ্রুত বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার নাম করে পাঁচুপুর উজান পাড়া গ্রামের ৩৭টি পরিবারের প্রত্যেকের নিকট থেকে ৬হাজার টাকা করে মোট ২লাখ ২০হাজার টাকা দাবি করেন।  আত্রাই পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সংগে উজ্জলএর সখ্য দেখে  ওই গ্রামের বিদ্যুৎ সংযোগ প্রত্যাশীরা হাছেন আলীর মাধ্যমে উজ্জলের হাতে ২লাখ২০হাজার টাকা তুলে দেন। টাকা নেওয়ার পর থেকে উজ্জল গাঁ ঢাকা দিয়েছে বলে ভুক্তভোগীরা জানান। এ ব্যাপারে আত্রাই পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির এজিএম আবুল কাশেম জানান,উজ্জল নামের কাউকে তাঁরা চেনেন না। তিনি আরো  বলেন,নির্দিষ্ট সময়ে কয়েকটি  ধাপে বিদ্যুৎ-সংযোগ দেওয়া হয়। পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ নিতে লাগে মাত্র ৬৫০টাকা। এর বেশি এবং অফিসের বাহিরে  নির্দিষ্ট রশিদ ছাড়া কাউকে টাকা না দিতে  এলাকায় পোষ্টার সাঁটানো ও নিয়মিত মাইকিং করা হয়।

দালাল ধরতে প্রতিনিয়ত অভিযান চলছে। এ ছাড়া অবৈধ ভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার নামে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির তালিকার বাহিরে বিনা রশিদে অতিরিক্ত টাকা উত্তোলন করছে তাদের নাম ঠিকানা দিয়ে এ পর্যন্ত কোন বিদ্যুৎ সংযোগ প্রত্যাশীরাও লিখিত অভিযোগ করে নাই। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইন গত ব্যবস্থা নেয়া হবে।কিন্তু  কিছু মানূষ দ্রুত বিদ্যুৎ-সংযোগের জন্য অবৈধ লেনদেন করে প্রতারিত হচ্ছে। এলাকাবাসীর দাবী ওই ৩৭টি পরীবারে দ্রুত বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান সহ দালাল চক্রের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করতে উর্দ্ধৃতন কর্তপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts