July 18, 2018

বিজেপি-র ত্রিপুরা বিজয়ের পর মূর্তি ভাঙ্গার রাজনীতি তুঙ্গে!

Lenin statue breaking demonstrationman die of terror attack at his house by BJP and RSSসাম্প্রতিক বিধান সভা নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টী (বিজেপি) ত্রিপুরা,Burning Tripura after election মেঘালয় ও নাগাল্যাণ্ড রাজ্যে তাদের আধিপত্য কায়েম করার পর দেশের কয়েকটি রাজ্যে মূর্তি ভাঙ্গার রাজনীতি মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে।  ত্রিপুরায় বাম মুর্চার ২৫ বছরজোড়া শাসন উপড়ে রাজ্যটিতে সরকার গঠনের প্রক্রিয়া চালিয়ে যাবার সময় একাংশ বিজেপি ও আর এস এস কর্মী এ রাজ্যে স্থাপিত রুশ কমিউনিষ্ট বিপ্লবী ভ্লাদিমির লেনিনর মূর্তি ভেঙ্গে চুরমার করার ঘটনা ভারতের অন্যান্য কিছু রাজ্যেও বিষবাষ্প ছড়িয়ে দিয়েছে।  বিজেপি ও আর এস এস কর্মীর এই দুষ্কার্য্যের প্রতিশোধ স্বরূপ আজ পশ্চিমবংগ রাজ্যের একাংশ ছাত্র-ছাত্রী দলবদ্ধ হয়ে জন-সংঘের প্রতিষ্ঠাপক ড০ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জীর একটি আবক্ষ মূর্তির ক্ষতি সাধন করে।  অন্যদিকে, তামিলনাড়ুর ভেলোর জেলায় একাংশ বিজেপি কর্মীরা দ্রাবিড়দের আদর্শ পুরুষস্বরুপ পেরিয়ার ইভি রামস্বামীর একটি মূর্তি চুরমার করে ফেলে।  বিজেপির রাষ্ট্রীয় সাধারন সম্পাদক এইচ রাজা ফেসবুক পেজে করা তাঁর প্ররোচনামূলক মন্তব্যের পর দলীয় কর্মীরা রামস্বামীর মূর্তির ক্ষতিসাধন করে।  এছাড়া দুর্বৃত্তরা গতরাতে উত্তর প্রদেশ রাজ্যে ভারতীয় সংবিধানের নির্মাতা ড০ বি আর আম্বেদকরের একটি মূর্তির ক্ষতি সাধন করে।  এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষী্তে সারা দেশে উত্তপ্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি করার আশঙ্কা প্রকট হয়ে উঠেছে।  দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং দলীয় কর্মীসহ সকল পক্ষকে সতর্ক করে দিয়ে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানান।

এদিকে, বাম গনতান্ত্রিক মোর্চা আজ রাজ্যজুড়ি প্রতিবাদী সমদল বের করে।  ত্রিপুরায় বিজেপি ও আর এস এস কর্মীরা হিংসার রাজনীতির সূত্রপাত করেছে বলে অভিযোগ তুলে আসামে ও বাম গনতান্ত্রিক মোর্চা তাদের প্রতিবাদী সমদল রাস্তায় বের করে। গোয়াহাটীতে ১১ দলীয় বাম গনতান্ত্রিক মোর্চা ত্রিপুরায় অবিলম্বে হিংসার রাজনীতি বন্ধ না হলে ফল ভাল হবে না বলে সতর্ক করে দেয়।

 

Related posts