November 17, 2018

বিগ ব্যাশে চ্যাম্পিয়ন সিডনি থান্ডার্স

352
স্পোর্টস ডেস্কঃ   রোববার মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এমসিজি) মেলবোর্ন স্টারসকে ৩ উইকেটে হারিয়ে বিগ ব্যাশ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মাইক হাসির দল সিডনি থান্ডার্স। প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৭৬ রান করে মেলবোর্ন স্টারস। জবাবে ১৯.৩ ওভারে ৭ উইকেট খুইয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় সিডনি থান্ডার্স।

১৭৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সূচনাটা ভালোই হয় সিডনির। ওপেনিং জুটিতে ৮৬ রান দলের স্কোরশিটে যোগ করেন ওসমান খাজা ও জ্যাক ক্যালিস। ব্যক্তিগত ২৮ রানে সাজঘরে ফেরেন ক্যালিস। কিন্তু দলকে জয়ের ভিত গড়ে ডেভিড হাসির শিকার হন ওসমান। ৪০ বলে পাঁচটি চার ও তিনটি ছক্কায় ৭০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। দুর্দান্ত এই ইনিংসের সুবাদে ফাইনালের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন সিডনির ওপেনার।

এছাড়া মাইক হাসির ১৮, বিলিজার্ডের ১৬, আন্দ্রে রাসেলের ১০ রানে সিডনি থান্ডার্সকে জয় নিশ্চিত হয়। আর তাতে বিশ ব্যাশের শিরোপা জয়ের উল্লাসে মেতে ওঠেন সিডনি ভক্তরা। মেলবোর্নের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন মারকুইজ স্টোইনস। ২ উইকেট নেন অ্যাডাম জাম্পা। আর ডেভিড হাসি নেন এক উইকেট।

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৬ রানে ওপেনার মারকুইজ স্টোইনসকে (৫) হারিয়ে বিপদে পড়ে মেলবোর্ন। তারা ঘুরে দাঁড়ায় দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে। ইংল্যান্ডের দুই তারকা ক্রিকেটার লুক রাইট ও কেভিন পিটারসেন মিলে দলের স্কোরশিটে যোগ করেন ৪৪ রান। রাইট বেশিক্ষণ ক্রিজে স্থায়ী হতে পারেননি। দলীয় ৫০ রানের মাথায় শেন ওয়াটসনের বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন মেলবোর্নের ওপেনার (২৩)।

কিন্তু জাতীয় দলে উপেক্ষিত পিটারসেন এদিন সিডনির বোলারদের কড়া শাসন করেন। নামের পাশে যোগ করেন ৭৪ রান। দক্ষিণ আফ্রিকার বোলার ক্রিস গ্রিনের শিকারে পরিণত হওয়ার আগে ৩৯ বলে ৪টি চার ও পাঁচটি ছক্কায় টর্নেডো এই ইনিংস খেলেন কেপি। এছাড়া ডেভিড হাসি করেন ২১ রান। অ্যাডাম জাম্পার ব্যাট থেকে আসে ১৫ রান।

সিডনির পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন শেন ওয়াটসন ও ক্রিস গ্রিন। সমান একটি করে উইকেট নিয়েছেন আন্দ্রে রাসেল, জ্যাক ক্যালিস ও ক্লিন্ট ম্যাককেই।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts