September 22, 2018

“বিএনপির সংস্কার, জামায়াত নিষিদ্ধ!”

0704d195-60b2-4f35-ab6a-d4d9599c04f5

নিউজ ডেস্ক : বিএনপিকে ‘আধা-সন্ত্রাসী সংগঠন’ আখ্যা দিয়ে দলটির সংস্কার চায় সরকার। তবে তাদের শরিক জামায়াতে ইসলামীকে পুরোপুরি ‘সন্ত্রাসী সংগঠন’ আখ্যা দিয়ে নিষিদ্ধ করার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

বুধবার রাজধানী ঢাকায় নিজ কার্যালয়ে একদল আন্তর্জাাতিক সাংবাদিকের সঙ্গে বৈঠককালে এ কথা জানান প্রতিমন্ত্রী। শাহরিয়ার আলম বলেন, জামায়াত পুরোপুরি একটি সন্ত্রাসী সংগঠন এবং বিএনপি আধা-সন্ত্রাসী সংগঠন, উভয় দলের মধ্যে জোট রয়েছে। বিএনপির সংস্কার প্রয়োজন। তবে জামায়াতকে নিষিদ্ধ করা জরুরি।

তিনি আরও বলেন, জামায়াতের মতো সন্ত্রাসী সংগঠনকে স্বাভাবিক রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড পালন করতে দেওয়া হবে না।

এরই মধ্যে নির্বাচন কমিশন জাতীয় সংসদ নির্বাচনসহ স্থানীয় সরকার নির্বাচনেও জামায়াতের অংশ নেওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এখন দলটির ব্যাপারে সরকার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রায়ের অপেক্ষায় রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ১৯৭১ সালে জামায়াতে ভূমিকা নিয়ে আমরা যুদ্ধাপরাধ টাইব্যুনালের রায়ের দিকে তাকিয়ে আছি এবং এরপর আমরা সামনে এগিয়ে যাব।

দ্য হিন্দু জানিয়েছে, গত কয়েক বছরে বাংলাদেশে জঙ্গি তৎপরতা বেড়েছে এবং গত ৬ এপ্রিল নাজিমুদ্দিন সামাদ হত্যার পর সারা দেশে পহেলা বৈশাখ সামনে রেখে গুমোট পরিবেশ সৃষ্টি হয়।

শাহরিয়ার আলম জানান, সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন বৈশ্বিক সন্ত্রাসবিরোধী জোটের সদস্য বাংলাদেশ সন্ত্রাসবাদকে পরাজিত করতে চায়।

তার মতে, ক্রমবর্ধমান সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় ব্যর্থতার আরেকটি কারণ হচ্ছে ‘মুসলিম বিশ্বে উত্তেজনা’।

তিনি বলেন, ধর্মনিরপেক্ষতার প্রতি আমাদের অঙ্গীকার বাংলাদেশের ভিত্তি স্তম্ভ, যা বাইরে থেকে বোঝা যাবে না। আগে বাংলাদেশের অনন্য পরিস্থিতি সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে।

তিনি বলেন, কিছু রাজনৈতিক শক্তির অবস্থান বাংলাদেশের মৌলিক নীতির বিরুদ্ধে। এ ধরনের শক্তিকে পরাজিত করতে হবে। –দ্য হিন্দু

Related posts