September 19, 2018

বিএনপির নেতাকর্মীদের তোপের মুখে দালাল আজাদ বিশ্বাস

রফিকুল ইসলাম রফিক, নারায়ণগঞ্জঃ নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও ফতুল্লা থানা কমিটির সেক্রেটারী আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাসকে এর আগেই স্থানীয় নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের ‘দালাল’ হিসেবে আখ্যায়িত করে। আওয়ামী লীগ ঘেঁষা ওই বিএনপি নেতা শ্রমিক দিবসে মিছিল নিয়ে ঢাকায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সমাবেশে যোগ দিতে যাওয়ার সময়ে বাধা দেয় নেতকর্মীরা। ওই সময়ে নেতাকর্মীদের একের পর এক তোপের কারণে শেষতক মিছিল ও র‌্যালী থেকে সরে যেতে বাধ্য হন আজাদ বিশ্বাস। এ নিয়ে ফতুল্লা থানা বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা গেছে, শ্রমিক দিবস উপলক্ষ্যে ১ মে ঢাকার সোহরাওর্দী উদ্যানে সমাবেশে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বক্তব্য রাখেন। এ উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্থান হতে মিছিল নিয়ে সমাবেশে যোগ দেয় নেতাকর্মীরা। ফতুল্লা থানা বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ শাহআলম এর ব্যানারে নেতাকর্মীরা মিছিলে যাওয়ার সময়ে হঠাৎ করেই সামনে এসে দাঁড়ান আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস। অথচ তিনি একজন লোক নিয়েও সমাবেশে যোগ দেয়নি। মূলত কুতুবপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি লুৎফর রহমান খোকার নেতৃত্বে কয়েক হাজার লোকজন ওই সমাবেশে যোগ দেয়। কিন্তু শেষ মুহূর্তে আজাদ বিশ্বাস মিছিলের সামনে যেতে চাইলে নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। এছাড়া আজাদ বিশ্বাস নেতাকর্মীদের নিয়ে ফটোসেশন করতে চাইলে এডভোকেট মাহমুদুল হক আলমগীর সাফ জানিয়ে দেন তিনি তার সঙ্গে কোন মিছিলে দাড়াবেননা। মূলত এভাবেই ওই দিন নাজেহাল হয়ে ফিরে আসেন আজাদ বিশ্বাস।

ওই মিছিলে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা কৃষক দলের সভাপতি শরীফ মোল্লা, কাশীপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ওমর আলী, বক্তাবলী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আকবর আলী সুমন, বক্তাবলী ইউনিয়ন বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি আলাউদ্দিন বারী, বিএনপি নেতা মন্টু মেম্বার, এনায়েতনগর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহমুদুল হক আলমগীর, কুতুবপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক আবু তাহের মোল্লা, বিএনপি নেতা সাগর প্রধান, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক মশিউর রহমান রনি প্রমুখ।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/২ মে ২০১৬

Related posts