September 25, 2018

বাবা-মা’র সামনেই দুই বছরের ছেলেকে টেনে নিয়ে গেল কুমির

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ  এ যেন হলিউড থ্রিলার ‘লেক প্লাসিড’-এর জীবন্ত উদাহরণ। বাবার চোখের সামনে ২ বছরের ছেলেকে ঝিলে টেনে নিয়ে গেল কুমির। চেষ্টা করেও, দুধের শিশুকে বাঁচাতে পারলেন না ওই ব্যক্তি। ঘটনাটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের।

খবরে প্রকাশ, অরল্যান্ডোর কাছে ওয়াল্ট ডিজনির গ্র্যান্ড ফ্লোরিডিয়ান রিসোর্টে সপরিবার ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন নেবরাস্কার ওই ব্যক্তি। রবিবার তাঁরা ওই হোটেলে ওঠেন। মঙ্গলবার রাতে তাঁরা সংলগ্ন সেভেন সিস লেগুন-এর ধারে ভ্রমণে গিয়েছিলেন।

অরেঞ্জ কাউন্টির শেরিফ ডেমিংস জানান, ওই ব্যক্তি, তাঁর স্ত্রী ও ২ বছরের শিশুকন্যা একটু ভিতরে ছিলেন। তখন ৪ বছরের শিশুপুত্র ঝিলের পাড়ে ভিজে বালিতে খেলা করছিল।

আচমকা চিৎকার শুনে ছুটে যান শিশুর বাবা। দেখেন, একটা প্রমাণ সাইজের কুমীর তাঁর ছেলেকে কামড়ে ধরে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাচ্ছে জলে। এই দেখে তিনি সঙ্গে সঙ্গে জলে নেমে কুমীরের মুখে হাত ঢুকিয়ে শিশুকে বের করে আনার চেষ্টা করেন। জলে নেমে পড়েন শিশুর মা-ও। কুমীরের সঙ্গে লড়াই করতে গিয়ে ওই ব্যক্তির শরীরের বিভিন্ন অংশে তাঁর চোট-আঘাত লাগে। কিন্তু, সব চেষ্টা ব্যর্থ হয়।

বাবা-মা’র চোখের সামনেই জলের মধ্যে ২ বছরের ছেলেকে টেনে নিয়ে চলে যায় কুমীরটি। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। পৌঁছয় মেরিন ফোর্সও। ঝিলে নামানো হয় প্রশিক্ষিত ডুবুরিদের। ব্যবহার করা হয় সোনার, কুমীর ধরার জাল।

কিন্তু, বহুক্ষণ চেষ্টা চালিয়েও শিশুটির কোনও হদিস মেলেনি। ডেমিংস জানান, অতীতে, ওই এলাকায় কুমীর-হামলার কোনও তথ্য ছিল না। যদিও তিনি স্বীকার করেন, এটা ফ্লোরিডা, এখানে কুমীর যে কোনও সময়ই আসতে পারে। মর্মান্তিক ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন রিসর্ট কর্তৃপক্ষ। পুলিশের অনুমান, কুমীরটি চার থেকে ৭ ফুট লম্বা ছিল।

সূত্রঃ এবিপি

Related posts