November 19, 2018

বাবাকে বাঁচানোর জন্য মেয়ে স্বপ্নার আর্তনাদ!

Gobindaganj
তোফায়েল হোসেন জাকির, স্টাফ রিপোর্টার: অসুস্থ্য বাবাকে বাঁচানোর জন্য মেয়ে স্বপ্না খাতুনের আর্তনাদে আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠছে। বাবার চিকিৎসার জন্য প্রতিদিনই আকুতি জানাচ্ছে সমাজের বিত্তবানদের নিকট। কিন্তু তার কোন আকুতিই এখনো কোন কাজে না আসায় দিন দিন তার বাবা আরো অসু¯্য’ হয়ে হাসপাতালে মৃত্যুর প্রহর গুনছে।
গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কোচাশহর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের মৃত সালজার রহমানের ছেলে বজলার রহমান কবিরাজি করে কোন রকমে ৫ সদস্যের সংসার চালিয়ে আসছিলেন। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম বজলার অর্থের দৈন্যতা থাকলেও মানসিক সুখের অভাব ছিল না। কিন্তু হটাৎ করেই সেই সুখ টুকু ও মিলিয়ে যেতে বসেছে। বেশ কিছুদিন ধরে তার কিডনি রোগ ধরা পড়ার পর তার উপার্জন বন্ধ হয়ে যায়। সেই সাথে বাড়তে থাকে সংসারের অভাব অনটন। টাকার অভাবে চিকিৎসা করতে না পেরে দিন দিন সে আরো অসু¯্য’ হয়ে পড়ে। পাড়া প্রতিবেশির সহযোগিতায় বজলারকে বগুড়ার ঠেঙ্গামাড়া রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানকার ডাক্তারগণ জানান, বজলারের দু’টি কিডনিই নষ্ঠ হয়ে গেছে। কিডনি প্রতিস্থাপন করতে না পারলে তাকে বাঁচানো সম্ভব নয়। কিন্তু কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য যে টাকার প্রয়োজন সে টাকা বজলারের নেই।
এমতাবস্থায় তার মেয়ে স্বপ্না খাতুন বাবাকে বাঁচানোর জন্য দিন রাত চোখের পানি ফেলছে। স্বপ্না জানান, দেশের অনেক বিত্তবান রয়েছে তারা যদি তার বাবার চিকিৎসার জন্য একটু সদয় হোন তাহলে তার বাবাকে বাঁচানো সম্ভব। তা নাহলে তার চোখের সামনেই তার বাবা তাদেরকে ছেড়ে চলে যাবেন। একথা বলেই হুহু করে কেঁদে ফেলেন স্বপ্না খাতুন। চোখের পানি ফেলতে ফেলতে স্বপ্না আরো জানালেন কোন হৃদয়বান দানশীল ব্যক্তি যদি তার বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেন তাহলে তার বিকাশ নম্বর ০১৭২২৩৫৭৫০৯ এ সাহায্য পাঠাতে অনুরোধ জানিয়েছেন।

Related posts