September 25, 2018

বাইসাইকেল চালিয়ে এমপি প্রার্থীর গণসংযোগ

zzzz

তোফায়েল হোসেন জাকির, নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আজিজার রহমান বিএসসি। পেশায় একজন স্কুল শিক্ষক। সাদুল্যাপুর উপজেলার নির্ভূত পল্লী গ্রামে আজিারের বাড়ি। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্যাপুর-পলাশবাড়ি) আসন থেকে নৌকা প্রতীকে সম্ভাব্য এমপি প্রার্থী তিনি। আজিজার রহমানের মোটরসাইকেল কিংবা অন্য কোনো ভারী যান বাহন না থাকলেও, আছে একটি নিজস্ব পুরাতন বাইসাইকেল। নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা উপলক্ষ্যে কিনেছেন একটি হ্যান্ডমাইক। প্রতিদিন সকালে গোসল না করলেও, অন্তত খাওয়া সেড়ে নেন। এরপর গায়ে কোর্ট, গলায় টাই আর গামছা পেছিয়ে হ্যান্ডমাইক গলায় বেধে বাইসাইকেলের প্যাডেল চালিয়ে গণসংযোগের উদ্দেশ্যে বেড়িয়ে পড়েন আজিজার। এ আসনের বিভিন্ন হাট-বাজার ও গ্রাম-গঞ্জে প্রতিদিন ৫/৬টি পথসভা করেন বলে জানা গেছে।

এছাড়াও তার নির্বাচনী ইস্তেহার হিসেবে লিফলেট বিতরণও চলমান রয়েছে। সেই সাথে নির্বাচনী এলাকার প্রতিটি রুটে ব্যানার-ফেসটুন ও পোষ্টার লাগিয়ে সাজিয়ে রেখেছেন মাঠঘাট। সম্ভাব্য এই এমপি প্রার্থী আজিজার রহমানের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণার জন্য কোন কর্মীবাহীনি না থাকায় নিজ হাতেই ব্যানার-ফেসটুন ও পোষ্টার লাগানোসহ একাকী পথসভা ও গণসংযোগ অব্যহত রেখেছেন। এভাবে প্রতিদিন বাইসাইকেল আর হ্যান্ডমাইক গলায় বেধে জনসংযোগে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন আজিজার রহমান।

ক্ষমতাশীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী এই প্রার্থী আজিজার রহমান বিএসসি সাদুল্যাপুর উপজেলার দড়ি জামালপুর রোকেয়া সামাদ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও ভাতগ্রাম ইউনিয়নের খোদা বকস গ্রামের মৃত রজ্জব মন্ডলের ছেলে। আওয়ামী লীগের দলীয় পরিচিতি হিসেবে ওই ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সাবেক সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।

সম্ভাব্য এমপি প্রার্থী আজিজার রহমান বলেন, আমি প্রায় দুইবছর আগে ঘুমের মাঝে স্বপ্ন দেখি যে, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হয়েছি। সেই স্বপ্ন পুরণে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩১, গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্যাপুর-পলাশবাড়ি) আসন থেকে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি। এ লক্ষ্যে প্রায় এক বছর ধরে মাঠে-ময়দানে গণসংযোগ সহ মনোনয়ন পেতে দলীয় হাইকমান্ডে যোগাযোগ অব্যহত রেখেছি। আমি মনোনয়ন পাব বলে আশাবাদি।

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি সাধারণ ভোটারের মাঝে ব্যাপক সাড়া উঠেছে। বর্তমানে আমাকে সবাই আজিজার এমপি বলে ডাকেন এবং চেনেন। এবারে এমপি নির্বাচিত হবো ইনশাল্লাহ।

এ বিষয়ে মাঠ পর্যায়ে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জনগণ তাকে ভোটপাগল আজিজার হিসেবে চেনেন এবং নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে আছেন।

Related posts