September 21, 2018

বাংলাদেশ-ভূটানের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা !

২৩ এপ্রিল ২০১৬ইং রংপুর চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র আয়োজনে বাংলাদেশ-ভূটানের মধ্যে ব্যবসায়ীক বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে রংপুর চেম্বার পরিচালনা পর্ষদের কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দ, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও ব্যবসায়ী এবং আমদানি ও রপ্তানিকারকদের সাথে ভূটান এর পররাস্ট্র মন্ত্রী লিওনপো দামচো দর্জি এর সাথে এক দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভা রংপুর চেম্বার ভবনের আরসিসিআই অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রংপুর চেম্বারের সভাপতি মোঃ আবুল কাশেম।

দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভায় রংপুর চেম্বারের সভাপতি মোঃ আবুল কাশেম বলেন, ‘ভূটান বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের বন্ধু। বন্ধুত্বের মাধ্যমে দু’দেশের অর্থনৈতিক সহযোগিতা আগামীতে আরো জোরদার করতে হবে। বিবিআইএন চুক্তির ফলে কানেক্টিভিটি সমস্যা কেটে গেছে এখন অবকাঠামোগত সমস্যা কেটে গেলে ভূটানের সঙ্গে বাংলাদেশের দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য বহুগুন বাড়বে। দুই দেশের দ্বি-পাক্ষিক সুসম্পর্কের কারণে দিন দিন দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যের পরিমাণ বাড়ছে। তাই তিনি দু’দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের গতি ত্বরান্বিতকরণে মার্কেট এ্যাকসেস, ট্রানজিট, অভ্যন্তরীণ নৌ-রুট ব্যবহার, স্থল বন্দরের অবকাঠামোগত উন্নয়ন, আমদানি-রফতানির ক্ষেত্রে এলসি প্রক্রিয়া সহজীকরণ, শুল্ক ও অশুল্ক বাধাসমূহ দূরীকরণ, ভিসা প্রক্রিয়া সহজীকরণের ব্যাপারে ভূটানের পররাস্ট্রমন্ত্রীর সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ থেকে বিশেষ করে ফার্মাসিউটিক্যালস, মৌসুমি শাক-সবজি, তৈরি পোশাক, পাট ও পাটজাত দ্রব্য, চামড়াজাত পণ্য ইত্যাদি আমদানির পদক্ষেপ নেয়ার অনুরোধ জানান।

দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভায় ভূটানের পররাস্ট্রমন্ত্রী লিওনপো দামচো দর্জি  ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে কিছু কিছু সমস্যা থাকলেও তা দেশের স্বার্থ বিবেচনা করে দ্রুত নিরসনের ব্যাপারে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে উপস্থিত ব্যবসায়ীদেরকে আশ্বস্ত করেন। তিনি বলেন ভূটান বাংলাদেশের সাথে সব সময় সৌহার্দ্য ও বন্ধুত্বপূর্ণ সুসম্পর্ক বজায় রাখার পাশাপাশি উভয় দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণের ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করে আসছে। বিবিআইএন চুক্তির ফলে ভূটানের সঙ্গে বাংলাদেশের দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য বহুগুন বাড়বে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তাই তিনি বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদেরকে উভয় দেশের সম্ভাবনাসমূহকে কাজে লাগিয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্পায়নের মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নেয়ার আহ্বান জানান।

দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন রংপুর চেম্বারের সহ-সভাপতি মোঃ মোজাম্মেল হক ডাম্বেল, এফবিসিসিআই এর পরিচালক ও রংপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি মোঃ মোছাদ্দেক হোসেন বাবলু, রংপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ড. এটিএম  মাহবুবুল করিম, পররাস্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালক (দক্ষিণ এশিয়া) মনোয়ার হোসেন, রংপুর চেম্বারের বর্তমান এবং সাবেক কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ীবৃন্দ, রংপুর উইমেন চেম্বারের নেতৃবৃন্দ, আমদানি-রপ্তানিকারকবৃন্দ, বিভিন্ন ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

২৩ এপ্রিল ২০১৬ইং রংপুর চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র আয়োজনে আরসিসিআই অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ-ভূটানের মধ্যে ব্যবসায়ীক বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ভূটান এর পররাস্ট্র মন্ত্রী লিওনপো দামচো দর্জি।

২৩ এপ্রিল ২০১৬ইং রংপুর চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র আয়োজনে আরসিসিআই অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ-ভূটানের মধ্যে ব্যবসায়ীক বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভা শেষে ভূটান এর পররাস্ট্র মন্ত্রী লিওনপো দামচো দর্জি এর সাথে ফটোসেশনে মিলিত হন রংপুর চেম্বার পরিচালনা পর্ষদের কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দ।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/২৩ এপ্রিল ২০১৬

Related posts