September 19, 2018

বাংলাদেশ থেকে যাওয়া ছিটবাসীরা ভারতে এখনো জমি পায়নি,জমির দাবিতে বিক্ষোভ

বাংলাদেশের বিলুপ্ত ছিটমহলের অধিবাসীরা ভারতের নাগরিকত্ব নিয়ে দেশটিতে যাওয়ার পর আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো জমি বুঝে পাননি। জমির দাবিতে তাঁরা বিক্ষোভ করেছেন।
বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের কুচবিহার জেলা প্রশাসন তাঁদের দাবি-দাওয়া বুঝিয়ে দিচ্ছেন না।

গত বুধবার বিলুপ্ত ছিটমহলের শত শত মানুষ জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কার্যালয়ে মিছিল নিয়ে যান এবং দাবি-দাওয়ার তালিকা করতে তাঁদের প্রতিনিধি নিয়োগের দাবি জানান। তাঁদের দাবি না মানা হলে নতুন করে বিক্ষোভ হুমকি দেন তাঁরা।
গত ৩১ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে ভারতীয় নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন বিক্ষোভকারীরা। তাঁদের দাবি, অবিলম্বে ভূমির মালিকানার জরিপ প্রক্রিয়া শুরু এবং নিবন্ধন করতে হবে। এটা না হলে তাঁরা নাগরিকত্ব পেলেও ভূমি পাবেন না।

আজ রোববার বিক্ষোভকারীদের নেতা দীপ্তিমান সেনগুপ্ত হিন্দুস্তান টাইমসকে বলেন, ‘জেলা প্রশাসন সাবেক ছিটমহলের জমি কেনাবেচার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল, যা বলবৎ ছিল গত ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত। আমরা আশা করেছিলাম, এর আগেই সরকার ভূমি রেকর্ড তৈরি করার প্রক্রিয়া শেষ করবে। কিন্তু প্রশাসন এখনো ভূমি পরিমাপের প্রক্রিয়া শুরু করতে পারেনি, এ কারণে ভূমি রেকর্ড তৈরিতে বড় ধরণের সমস্যা হবে বলে আমরা আশঙ্কা করছি। স্বাধীনতার পর থেকে কোনো ভূমি রেকর্ড ছিল না এবং এ ভূমি এরই মধ্যে হাত ঘুরতে শুরু করেছে।’

বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছেন, আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে জেলা প্রশাসন ঘোষিত ভূমি জরিপের কাজ করতে ব্যর্থ হলে আবারো তাঁরা রাস্তায় নামবেন।

দীপ্তিমান বলেন, ‘আমরা জেলা প্রশাসনকে একটি আলটিমেটাম দিয়েছি, কারণ ভূমি জরিপের কাজটি জটিল হয়ে উঠছে এবং প্রশাসন স্রেফ এটাকে আরো জটিল করে তুলছে।’

নাগরিক অধিকার সমন্বয় কমিটির ব্যানারে মিছিলের আয়োজন করা হয়। স্থানীয় যুবক সাদ্দাম হোসেন বলেন,‘আমাদের সহজ দাবি, আমরা আগে ভূমির কাগজপত্র চাই।’

ভারতের গণপূর্ত ও বিদ্যুৎ বিভাগ অবকাঠামো নির্মাণে এরই মধ্যে জরিপ করেছে। তবে ভূমি জরিপের কাজ এখনো শুরু হয়নি।
দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম /মেহেদি/ডেরি

Related posts