November 20, 2018

বাংলাদেশ গ্লোবাল সামিট আয়োজনে মালয়েশিয়া সরকারের সহযোগিতার আশ্বাস


মাঈনুল ইসলাম নাসিমঃ   কুয়ালালামপুরে চলতি বছর ১৯-২০ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ১ম বাংলাদেশ গ্লোবাল সামিটের সার্বিক আয়োজন ও ব্যবস্থাপনায় সম্ভব সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেয়া হয়েছে মালয়েশিয়া সরকারের তরফ থেকে। ১২ এপ্রিল মঙ্গলবার প্যারিসে মালয়েশিয়ান দূতাবাসে রাষ্ট্রদূত ইব্রাহিম আবদুল্লাহর সাথে সামিটের আয়োজক সংগঠন অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশন (আয়েবা)’র সেক্রেটারি জেনারেল কাজী এনায়েত উল্লাহর একান্ত বৈঠকের সময় রাষ্ট্রদূত জানান, তাঁর সরকারের তরফ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে সামিট আয়োজনে।

বহুল আলোচিত এই গ্লোবাল সামিটের প্রথম আয়োজনের ভেন্যু হিসেবে যেসব কারণে  কুয়ালালামপুরকে নির্ধারণ করা হয়েছে, তা অবগত হয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন রাষ্ট্রদূত ইব্রাহিম আবদুল্লাহ। আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, বড় ধরণের এই আয়োজন তাঁর দেশের সাথে বন্ধুপ্রতীম বাংলাদেশের সম্পর্ক আরো মজবুত করতে সহায়ক হবে। ইউরোপ জুড়ে বাংলাদেশী অধ্যুষিত বিভিন্ন দেশে অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের বিভিন্ন কর্মতৎপরা রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন আয়েবা সেক্রেটারি জেনারেল। বিশ্বায়ণের এই যুগে আয়েবার কর্মপরিধিকে বিশ্বব্যাপী ঢেলে সাজাবার চলমান প্রয়াসকে সাধুবাদ জানান মালয়েশিয়ান রাষ্ট্রদূত।

রাষ্ট্রদূত ইব্রাহিম আবদুল্লাহকে জানানো হয়, কুয়ালালামপুর সামিট সারা বিশ্বের প্রবাসী বাংলাদেশীদের মধ্যে মেলবন্ধনই রচনা করার পাশাপাশি বাংলাদেশে তাঁদের বিনিয়োগকে আরো বেশি উৎসাহিত করতে কাজ করবে। দুই দিন ব্যাপী সামিট চলাকালীণ মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ীদের মধ্যে বি-টু-বি তথা বিজনেসম্যান টু বিজনেসম্যান আলোচনা ও সেমিনারের আয়োজন করা হবে বলে রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন আয়েবা সেক্রেটারি জেনারেল কাজী এনায়েত উল্লাহ। এ লক্ষ্যে মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশ উভয় দেশের বিজনেস চেম্বার, বোর্ড অব ইনভেস্টমেন্ট এবং ট্যুরিজম বোর্ড সহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন মাল্টিল্যাটেরাল চেম্বারের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার ওপর জোর দেন রাষ্ট্রদূত ইব্রাহিম আবদুল্লাহ।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/১৩ এপ্রিল ২০১৬/রিপন ডেরি

Related posts