November 15, 2018

বাংলাদেশের ওপর নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব ব্রিটিশ নেতার: ক্ষুব্ধ সরকার

saimon

24 Mar, 2016: বাংলাদেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে ব্রিটিশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির লেবার পার্টির বহিষ্কৃত নেতা সায়মন ডানজুক। এতে ক্ষুব্ধ হয়েছে বাংলাদেশের সরকার।

বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ পত্রিকা গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত শুক্রবার ঢাকায় আসেন সায়মন ডানজুক। এর পর বিএনপির সম্মেলনে (১৯ মার্চ) তিনি ভাষণ দেন। এ সময় তিনি বলেন, ক্ষমতায় আসার পর থেকে ক্ষমতাসীন সরকার ভয়ের সংস্কৃতি তৈরি করেছে। মানবাধিকার লঙ্ঘন করে চলেছে। বিরোধী পক্ষের লোকজন নিখোঁজ হচ্ছে।

বাংলাদেশ ও ব্রিটেনের সম্পর্ক প্রসঙ্গে সায়মন ডানজুক বলেন, ‘সম্পর্ক টকে গেছে। প্রকৃত গণতন্ত্র ফিরে না এলে (বাংলাদেশের ওপর) নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত।’

প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজনৈতিক সহিংসতা থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেনি ব্রিটিশ মন্ত্রিরা। বরং তাঁরা নিয়মিত বাংলাদেশ সফর করছেন। আর বর্তমানে যুক্তরাজ্য বার্ষিক ১৮ কোটি পাউন্ড বাংলাদেশে অর্থায়ন করে থাকে।

ডানজুকের মন্তব্য সম্পর্কে লন্ডনে বাংলাদেশি হাইকমিশনের এক মুখপাত্র বলেন, ব্রিটিশ ওই সংসদ সদস্যের বাংলাদেশের বিএনপি ও জামায়াত ইসলামের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে। তিনি গণতান্ত্রিক রাজনীতির বিষয়ে হস্তক্ষেপ করেছেন।

হাইকমিশনের ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘বাংলাদেশের জাতীয় রাজনীতি নিয়ে কথা বলে দেশের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করা হয়েছে। বাংলাদেশে গণতন্ত্র বিকাশমান। আগামী নির্বাচন হবে ২০১৯ সালে।’

ডানজুক বিএনপি ও জামায়াতের মতো মন্তব্য করেছেন বলে গার্ডিয়ানকে বলেন হাইকমিশনের ওই কর্মকর্তা।
তবে বাংলাদেশ নিয়ে মন্তব্য বিষয়ে গার্ডিয়ানকে ডানজুক বলেন, এটা হস্তপেক্ষ হয়নি। বাংলাদেশে যা হচ্ছে সেজন্যই নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলেছি।

অসংখ্য খবর আছে যে বাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। ব্রিটিশ সরকারের উচিত বাংলাদেশকে চাপ সৃষ্টি করা।

Related posts