November 20, 2018

বাংলাদেশি হাই কমিশনারকে তলব করল পাকিস্তান

503

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ    মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও জামায়াত নেতা আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদের ফাঁসি কার্যকর করা নিয়ে বাংলাদেশ সরকারের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে পাকিস্তান। সোমবার এ প্রতিবাদ জানাতে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয় সেখানে নিযুক্ত বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত হাই কমিশনারকে। গত ২৩শে নভেম্বর ঢাকায় পাকিস্তানের দূতকে তলব করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যে অভিযোগ করেছিল তা ভিত্তিহীন দাবি করা হয়েছে পাকিস্তান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে। এ খবর দিয়েছে এসোসিয়েটেড প্রেস অব পাকিস্তান (এপিপি)।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে অভিযুক্ত এই দু’নেতার ফাঁসি কার্যকর হয় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে। এ নিয়ে পাকিস্তান সরকারের তরফ থেকে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এক মুখপাত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে প্রকাশিত বিবৃতিতে পাকিস্তান সরকারের পক্ষ থেকে ওই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করা হয়। এদিকে এমন প্রতিক্রিয়া প্রকাশের পর এর ব্যাখ্যা চেয়ে ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির হাইকমিশনার সুজা আলমকে তলব করে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। পাকিস্তান সরকারের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভের সঙ্গে আমরা লক্ষ্য করেছি, দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির নেতা সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী এবং আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। এই ঘটনায় পাকিস্তান শঙ্কিত।

১৯৭১ সালের ঘটনার ব্যাপারে বাংলাদেশে যে ত্রুটিপূর্ণ বিচার চলছে সে বিষয়ে আমরা আন্তর্জাতিক প্রতিক্রিয়াও লক্ষ্য করেছি।’ পাকিস্তান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই বিবৃতিতে পাকিস্তান, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ১৯৭৪ সালের ৯ই এপ্রিল সম্পাদিত চুক্তির বিষয়টি উল্লেখ করে বলা হয়, সে অনুসারে বাংলাদেশে জাতীয় সমঝোতার প্রয়োজন আছে। এই সমঝোতায় ১৯৭১ সালের ব্যাপারে ভবিষ্যতের দিকে তাকানোর কথা বলা হয়েছে জানিয়ে ‘এর মধ্য দিয়ে সম্প্রীতি আরও বাড়বে’ বলে আশা করে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরী নিসার আলী খান এক বিবৃতিতে বলেন, বাংলাদেশে একটি গ্রুপ পাকিস্তান ও বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের বিরুদ্ধে কাজ করছে। বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মানুষের মধ্যে যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে তা পুনরুদ্ধারের বিরুদ্ধে রয়েছে বাংলাদেশের একটি গ্রুপ। এতে তিনি আরও বলেন, যে কেউ, যারা পাকিস্তানের সমর্থন করেন তাদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নেয়া শেষ হওয়ার উপযুক্ত সময় এখন। পাকিস্তান ও বাংলাদেশের মানুষ অতীতের তিক্ততা ভুলে এখন বন্ধুত্বপূর্ণ ও ভ্রাতৃত্বমূলক সম্পর্ক গড়ে তুলতে চায়।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts