September 22, 2018

বরিশাল বুলসের নাটকীয় জয় ।

বিপিএলের লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসকে দুই উইকেটে হারিয়েছে বরিশাল বুলস। ওয়েস্ট ইন্ডিজের রায়াড এমরিটের ঝড়ো অর্ধশতক নাটকীয় জয় এনে দিয়েছে মাহমুদউল্লাহ দলকে।

হেরে গেলেও ঢাকা ডায়নামাইটসের অবশ্য ক্ষতি হয়নি। সিলেট সুপারস্টার্সের ব্যর্থতায় আগেই শেষ চার নিশ্চিত হয়ে গেছে ঢাকার দলটির। আট পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে থেকে শেষ চারের লড়াইয়ে নামবে তারা। জিতলেও তৃতীয় হয়ে লিগ পর্ব শেষ করেছে বরিশাল বুলস। রংপুর রাইডার্স ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মতো তাদের সংগ্রহও ১৪ পয়েন্ট। তবে নেট রানরেটে এগিয়ে থাকায় কুমিল্লা পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আর রংপুর দ্বিতীয় স্থানে।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ১৩৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই উইকেট হারিয়েছে বরিশাল বুলস। তৃতীয় ওভারে রনি তালুকদারকে (৪) কট বিহাইন্ড করে ঢাকা ডায়নামাইটসকে প্রথম সাফল্য এনে দেন পাকিস্তানের দীর্ঘদেহী পেসার মোহাম্মদ ইরফান।
প্রথম তিন ম্যাচে ব্যর্থতার কারণে প্রথম একাদশ থেকে ছিটকে পড়েছিলেন ব্রেন্ডন টেলর।

বৃহস্পতিবার দলে ফিরলেও আবারো তিনি ব্যর্থ। জিম্বাবুয়ের অভিজ্ঞ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান এবার করেছেন তিন রান। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহও (১) ব্যর্থ। দুজনকেই ফিরিয়েছেন বাঁহাতি স্পিনার নাবিল সামাদ। টেলর এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েছেন, মাহমুদউল্লাহ বোল্ড।
ব্যাটসম্যানদের যাওয়া-আসার মিছিলে একমাত্র ব্যতিক্রম ছিলেন মেহেদি মারুফ। ৩৭ রান করে বরিশালের আশা বাঁচিয়ে রেখেছিলেন এই ডানহাতি ওপেনার। স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেলে মারুফকে বিদায় করেছেন আরেক বাঁহাতি স্পিনার মোশাররফ হোসেন।

৭৬ রানে সপ্তম উইকেট পতনের পর ব্যাট হাতে ঝড় তুলেছেন এমরিট। ছয়টি চার ও দুটি ছক্কায় মাত্র ২৮ বলে ৫৪ রানে অপরাজিত থেকে তিনিই বরিশালকে পৌঁছে দিয়েছেন জয়ের লক্ষ্যে। এমরিটকে যোগ্য সঙ্গ দিয়ে ৯ রানে অপরাজিত ছিলেন নিখিল দত্ত। নবম উইকেটে ২১ বলে ৪৩ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েছেন দুজনে।

Related posts