November 17, 2018

বদলে যাচ্ছে টেস্ট ও ওয়ানডে ক্রিকেটের কাঠামো

222টেস্ট ও ওয়ানডে ফরম্যাটে আমূল পরিবর্তন করতে যাচ্ছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের প্রধান নির্বাহী কমিটি সভায় একটি দুই বছরের টেস্ট লিগ, ১৩ দলের ওয়ানডে লিগ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য আঞ্চলিক বাছাইপর্বের প্রস্তাবে সবুজ সংকেত দেওয়া হয়েছে।

দুবাইতে আইসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের বৈঠকে ক্রিকেট কাঠামোর পরিবর্তনের বিষয়ে রূপরেখা প্রণয়ন করা হয়েছে। আগামী এপ্রিল মাসের সভায় সুপারিশগুলো গৃহীত হলেই বদলে যাবে চিরাচরিত ক্রিকেটের ধারণা।

প্রধান নির্বাহীদের সভায় দুই বছরব্যাপী টেস্ট লিগের প্রস্তাব করা হয়েছে। অ্যাশেজের মতো সিরিজগুলোও এই লিগের অন্তর্ভুক্ত হবে। বাংলাদেশসহ প্রথম স্তরে থাকবে নয়টি দেশ। জিম্বাবুয়ে, আয়ারল্যান্ড ও আফগানিস্তান নিয়ে আরেকটি টেস্ট লিগ। সেখানে ভালো করার মাধ্যমে বাড়তে পারে টেস্ট দলের সংখ্যা। এছাড়া তিন বছর ধরে ওয়ানডে লিগ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এখানেও দ্বিস্তর বিশিষ্ট  কাঠামোর কথা ভাবছে আইসিসি। ১৩টি দল নিয়ে হতে পারে এই লিগ। সহযোগী দেশগুলোকে নিয়ে হবে আরেক লিগ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য হবে বাছাইপর্ব।

র‌্যাঙ্কিংয়ের সেরা নয় দল ঘরে বা প্রতিপক্ষের মাঠে দুই বছরের মধ্যে অন্তত একবার খেলবে। সেরা দুই দল মুখোমুখি হবে প্লে-অফে। পূর্ণ সদস্য দেশগুলোর এর বাইরেও দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ আয়োজন করতে পারবে। প্রস্তাবে বলা হয়, লিগ শুরু হলে প্রথম নয় দলকে প্রতি দুই বছরে এই তিন দেশের অন্তত একটির সঙ্গে সিরিজ খেলতে হবে। চার বছর পর পর এই তিন দেশের মূল্যায়ন করা হবে।

তিন বছর মেয়াদী ওয়ানডে লিগে খেলবে ১৩ দেশ। ১০টি টেস্ট খেলুড়ে দেশ এবং আয়ারল্যান্ড, আফগানিস্তানের সঙ্গে যুক্ত হতে পারে ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের চ্যাম্পিয়ন দল। এই সময়ে প্রতিটি দল ঘর ও প্রতিপক্ষের মাঠে একটি করে সিরিজ খেলবে।

বছরের অন্তত ১২টি করে ম্যাচ খেলার সুযোগ মিলবে প্রতিটি দেশের। স্বাভাবিকভাবে নেই কোনো সর্বোচ্চ সীমা। আয়োজক দেশ আর প্রথম সাত দল সরাসরি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে। এই লিগের শেষ ৫ দলকে অন্য দেশগুলোর সঙ্গে খেলতে হবে বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে। মূল টুর্নামেন্ট হবে ১০ দলের।

এবার থেকেই চার বছর পরপর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হওয়ার কথা। সেই হিসাবে পরের দুই আসর হওয়ার কথা ২০২০ ও ২০২৪ সালে। তবে ২০১৮ ও ২০২২ সালে আরও দুটি বাড়তি বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে কথা চলছে।

Related posts