September 20, 2018

‘বঙ্গতাজকে ভুলে যাওয়া মানে নিজের জন্মকে ভুলে যাওয়া’

রিপন হোসেন
ঢাকা থেকেঃ
নতুনধারা বাংলাদেশ-এনডিবি’র আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, বঙ্গতাজকে ভুলে যাওয়া মানে নিজের জন্মকে ভুলে যাওয়া। আর এই কাজটি-ই এখন জামাত-জঙ্গী-যুদ্ধাপরাধীদের পাশাপাশি সরকার দলীয় একটা শ্রেণী করে চলেছে। যে কারনে পাঠবইয়ে বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমেদের জীবনী নেই; নেই তার সম্পর্কে সামান্যতম আলোচনাও; যা নতুন প্রজন্মকে ক্রমশ সোচ্চার করে তুলছে। নতুনধারা বাংলাদেশ-এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদীর সভাপতিত্বে বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা উপরোক্ত কথা বলেন।

২৩ জুলাই সকাল ১০ টায় ‘বঙ্গতাজের জীবন থেকে শিক্ষা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন নতুনধারা বাংলাদেশ-এনডিবি’র প্রেসিডিয়াম মেম্বার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মান্নান আজাদ, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, ভাইস চেয়ারম্যান শেখ হাবিব খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদুল ইসলাম কামাল, যুগ্ম মহাসচিব ডা. নূরজাহান নীরা, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি মাহামুদ হাসান তাহের, সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল প্রধান, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবকধারার সভাপতি আবদুল হালিম হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, জাতীয় ধর্মধারার সাধারণ সম্পাদক এসটি তুষার ইমরান, বাড্ডা শাখা নতুনধারার আহবায়ক সোহেল রানা প্রধান, শাহাদাত হোসেন সাগর, দেলোয়ার হোসেন প্রধান প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে ধারার চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেন, নতুন প্রজন্ম তাদের সর্বোচ্চ শক্তি-মেধা আর যোগ্যতার রাজনীতিতে তৈরির পাশাপাশি স্বাধীনতার অন্যতম সংগঠক বঙ্গতাজের জীবন দর্শন নিয়ে এগিয়ে যাবে। যেভাবে বঙ্গবন্ধু, মওলানা ভাসানী, শেরেবাংলাসহ সকল জাতীয় নে

Related posts