November 19, 2018

বগুড়ার ধুনট বাজারে শতকেজি ওজনের বিরল প্রজাতির ডলফিন বিক্রি

dol

বগুড়া : বগুড়ার ধুনট বাজারে এবার শতকেজি ওজনের বিরল প্রজাতির ডলফিন বিক্রি হয়েছে। শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টায় সারিয়াকান্দি উপজেলার আওলাকান্দি এলাকায় যমুনা নদীতে জেলের ছিপজালে ডলফিনটি ধরা পরে।

জানা যায়, রৌহাদহ গ্রামের জেলে আব্দুর রহিম শুক্রবার গভীর রাতে যমুনা নদীর আওলাকান্দি ঘাট এলাকায় মাছ ধরছিল। এসময় তার ছিপজালে একটি বিরল প্রজাতির গাঙ্গেজ ডলফিনের দাঁত আটকে যায়। ডলফিনটি শারীরিক ভাবে দূর্বল থাকায় খুব সহজে তাকে তুলে ফেলেন আব্দুর রহিম। শনিবার সকালে ডলফিনটি বিক্রির জন্য ধুনট বাজারের মৎস্য আড়তে নেওয়া হয়। এদিকে বিরল প্রজাতির ডলফিন দেখার জন্য প্রচুর মানুষের সমাগম ঘটে। খবর পেয়ে ধুনট বাজার থেকে আওলাকান্দি গ্রামের আব্দুস সোবহান ডলফিনটি মাত্র ৩হাজার টাকা মূল্যে কিনেছেন।

ধুনট বাজারের মাছের আড়ৎদার রবিন জানান, মাছ হিসেবেই প্রাণীটিকে আড়তে আনা হয়। কিন্তু প্রথমে প্রাণীটির নাম কেউ বলতে পারেনি। মুলত, ডলফিন আকৃতির প্রাণীটি স্থানীয় ভাবে শুশুক নামে পরিচিত। ৬০ ইঞ্চি দৈর্ঘ্য শুশুকটির ওজন প্রায় আড়াইমন।

মাছটির ক্রেতা আব্দুস সোবহান বলেন, শুশুকের চামড়ার নীচে চর্বির স্তর থাকে। ওই চর্বি মাছ ধরার উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত হয়। মুলত মাছ শিকারের জন্য ওই চর্বি ব্যবহার করতে শুশুকটি ক্রয় করা হয়েছে।

ধুনট উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) তহিদুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় ভাবে এটি শুশুক নামে পরিচিত। তবে এটি বিরল প্রজাতির ডলফিন। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় ডলফিনটি ভূমিকা রাখে। এ ধরনের ডলফিন ধরা ও বিক্রি করা আইনত নিষিদ্ধ।

Related posts