September 18, 2018

ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সম্মেলন উপলক্ষে প্যারিসে সাজ সাজ রব

সেলিম উদ্দিন, প্যারিস থেকে: ১৮ সেপ্টেম্বর রবিবার ফ্রান্স আওয়ামী লীগের স্হগিত হওয়া সম্মেলন অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে। এ উপলক্ষ্যে প্যারিসের বাঙগালী অধ্যুষিত এলাকা গুলোয় এখন প্রবাসী বাংলাদেশীদের পদচারণে সরগরম। রাতভর আলোচনা, পরিকল্পনা। হরদম মিলছে বাদাম-চানাচুর, চা-কফি। আছে পান-সুপারির আয়োজন। সর্বত্র উল্লাস, উচ্ছ্বাস, উত্তেজনা। এসবের ভিড়ে একটু ঢুঁ মারলে জানা যায় আসল ঘটনা। বহুল প্রতিক্ষীত ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সম্মেলন। এ সম্মেলন নিয়ে বিনিদ্র রাত কাটাচ্ছেন দলের প্রবাসী নেতা-কর্মী ও সমর্থকেরা। অনেক সাধারণ প্রবাসীও আছেন এই দলে। বেশ কিছু আওয়ামী সমর্থক প্রবাসীর ভাষ্য, সম্মেলন উপলক্ষে তাঁরা প্রায় চার পাচঁ দিন আগে কাজ থেকে ছুটি নিয়েছেন। কর্মে যাচ্ছেন না। কাজের ফাঁকে জড়ো হচ্ছেন। দলের উচ্চ পর্যায়ের সূত্রে জানা গেছে,এবারের সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটিতে আসছে একঝাক তরুণ নেতৃত্ব, প্রায় ডজনখানেক গুরুত্বপূর্ণ পদে নতুন মুখ আসতে পারে। আর এ জন্য বেছে নেয়া হচ্ছে সাবেক ছাত্রলীগ নেতাদের। তবে প্রাধান্য দেয়া হবে দলের জন্য কাজ করেছেন এমন ত্যাগীদের। সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক মুক্তিযুদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমদের ভাষ্যমতে- গত ৮ মে স্হগিত হওয়া সম্মেলন পূণরায় হচ্ছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সুতরাং দ্বিধা-দ্বন্ধ ভুলে সম্মেলনকে সর্বাত্বক সফল করতে হবে। ১৮ সেপ্টেম্বরের সম্মেলন সফল করে প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। অন্যদিকে সম্মেলনকে সামনে রেখে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণাও তুঙ্গে। ইতিমধ্যে প্রার্থীদের সহানুভূতি কামনায় চলছে বিভিন্ন রকমের রকমারী আয়োজন। সবদিক মিলে উৎসবের আমেজে উৎফুল্ল কর্মীরা। সেই সাথে প্রার্থীদের সিনিয়র নেতাদের আশীর্বাদ পেতে বেড়েছে দৌড়ঝাপ। চলছে হিসাব নিকেশের পালা। কাউন্সিলর ও নেতা কর্মীদের সাথে চলছে প্রার্থীদের জনসংযোগ। বাঙগালী অধ্যুষিত টি ষ্টল গুলোতে প্রার্থীদের পক্ষে বিপক্ষে চলছে আলোচনার ঝড়। কে হচ্ছেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের আগামী দিনের কান্ডারী। প্রার্থীদের মধ্যে তিন চার জন কর্মীদের কাছে দলের জন্য পরিক্ষীত ও অত্যন্ত জনপ্রিয় সংগঠক হিসেবে পরিচিত। মাঠ পর্যায়ে নেতা কর্মীদের সাথে আলাপ চারিতায় জানা যায়, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের দুই দিকপাল নাজিম উদ্দিন আহমেদ ও বেনজীর আহমেদ সেলিমের যোগ্য উত্তর সূরী এম এ কাসেম জীবনের তিরিশটি বছর ফ্রান্স আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করার জন্য ব্যয় করেছেন। এবারের সম্মেলনের মাধ্যমে উনিই হবেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের কান্ডারী সেটা অনেকটা নিশ্চিত। তবে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী নিয়ে চলছে তুমুল প্রতিযোগিতা। শেষ সময়ে কমিটি ভোটের মাধ্যমে হবে নাকি সমঝোতার ভিত্তিতে হবে তা নিয়ে রয়েছে মাঠ পর্যায়ে গুঞ্জন। সেদিকে নজর রয়েছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের। ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযুদ্ধা বেনজীর আহমেদ সেলিম বলেন-সব ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সম্মেলন সফল হবে। এ জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এবারের সম্মেলনের মাধ্যমে নবীন প্রবীণের সমন্বয়ে একটি সুন্দর কমিটি উপহার দেওয়ার আশা ব্যক্ত করেন।
উল্লেখ্য : গত ৮ মে ২০১৬ দুই প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী সাধারণ সম্পাদক দের মধ্যে সংঘর্ষ বাধলে সম্মেলন পন্ড হয় এবং তাৎক্ষণিকভাবে ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি অনিল দাশ গুপ্ত বি এন পি জামাত জোটকে দায়ী করে আবারও নতুন করে সম্মেলন করা হবে বলে সাংবাদিকদের জানান। ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ সভাপতি অনিল দাশ গুপ্ত ও সাধারন সম্পাদক এম এ গনি ফ্রান্স আওয়ামী লীগের দুই সাধারণ সম্পাদক প্রার্থীদের একজন মহসিন উদ্দিন খাঁন লিটনকে সভাপতি ও দিলওয়ার হোসেন কয়েছ কে সাধারণ সম্পাদক ঘোষনা করে ঐরাতে । পরবর্তীতে সিনিয়র নেতৃবৃন্দের মাঝে এ নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়,তাঁরা সংবাদ সম্মেলন করে আবারও সম্মেলন করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। তার ধারাবাহিকতায়, গত ২০ মে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদ সেলিম ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি আহবায়ক নাজিম উদ্দিন আহমেদ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেন। ওই সময় তাঁরা ফ্রান্স আওয়ামী লীগের রাজনীতির চলমান সংকট তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রীকে। শেখ হাসিনা তাদেরকে পূণরায় সম্মেলন করার জন্য বলেন। সে নির্দেশনা অনুযায়ী ফ্রান্স আওয়ামী লীগের ৮ মে স্হগিত হওয়া সম্মেলন ১৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

Related posts