September 21, 2018

ফের তুর্কি উপকূলে ভেসে এলো ছয় শিশু

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ গত সেপ্টেম্বরে আয়লান কুর্দির মৃত্যুর পর বিশ্বনেতাদের নড়েচড়ে বসা কিংবা শরণার্থীর স্রোত সামলাতে তুরস্কের কঠোর অবস্থান, কিছুই থামাতে পারছে না সাগরে ডুবে প্রাণহানীর ঘটনা। তুর্কি উপকূলে ফের ভেসে এলো ছয় শিশুর মরদেহ।

তুর্কি উপকূলের কাছে এজিয়ান সাগরে মঙ্গলবার (০৮ ডিসেম্বর) ফের নৌকাডুবির ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো। রাবারের ডিঙ্গি নৌকায় চেপে শরণার্থীরা গ্রিসের কিয়স দ্বীপে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন।

খবরে জানানো হয়, এই শরণার্থীরা আফগানিস্তানের নাগরিক। তুর্কি কোস্টগার্ড পাঁচ শরণার্থীকে উদ্ধার করেছে। নিখোঁজ রয়েছেন আরও দু’জন। নিহত ছয় শিশুর বয়স জানানো না হলেও এদের মধ্যে একজন এক বছরের কম বয়সী বলে জানিয়েছে তুর্কি সংবাদমাধ্যম আনাদোলু।

এর আগে গত সেপ্টেম্বর মাসে একইভাবে গ্রিস পাড়ি জমাতে গিয়ে এজিয়ান সাগরে ডুবে যায় দু’টি সিরীয় শরণার্থীবাহী নৌকা। এ ঘটনায় নিহতদের মধ্যে আয়লান কুর্দি, তার ভাই ও মাও ছিলেন। তিন বছরের এই শিশুর মৃত্যুর ঘটনা সে সময় বিশ্বজুড়ে তোলপাড় তোলে। শরণার্থী ইস্যুতে নড়েচড়ে বসেন বিশ্বনেতারা।

জাতিসংঘ জানিয়েছে, চলতি বছর সমুদ্রপথে ৮ লাখ ৮৬ হাজারেরও বেশি শরণার্থী ও অভিবাসন প্রত্যাশী ইউরোপ পৌঁছেছে। এছাড়া ভূমধ্যসাগরের পূর্বাঞ্চলীয় রুটে ডুবে প্রায় ছয়শ মানুষের প্রাণহানী হয়েছে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts