November 14, 2018

ফুলের মতো হাসি ফুটেছে ফুলমতির

zakir pic
তোফায়েল হোসেন জাকির, স্টাফ রিপোর্টার : বীরঙ্গনা ফুলমতি রানী। সেই ৭১ এর ক্ষত যন্ত্রণা নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন একটি ঝুপড়ী ঘরে। সেই ঘরেই খেয়ে না খেয়ে দিনাতিপাত করতো ফুলমতি। আর অশ্রু ভেজা নয়নে ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে থাকতো মানবপ্রাণে। এখন যেন ফুলের মতো হাসি ফুটেছে ফুলমতির। DSC03394

মহান মুক্তিযুদ্ধে বিরোচিত অবদানের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে ফুলমতি পেয়েছেন বীর নিবাস। গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলা শহরের উত্তরপাড়াস্থ নারী মুক্তিযোদ্ধা (বীরাঙ্গনা) রাজকুমারী রবিদাস ফুলমতি রানী সোমবার দুপুওে আনুষ্ঠানিক ভাবে সেই বীর নিবাসে উঠেছেন। এ উপলক্ষে স্থানীয় প্রশাসন, রাজনৈতিক ও সাংবাদিক সহ আরও অনেককেই দাওয়াত করেছিলেন ফুলমতি। উপস্থিত হয়েছিলেন একঝাঁক বীরমুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক ও সুধিমহল।

এর আগে নির্মিত বীর নিবাসটি উদ্বোধন করেন গাইবান্ধা-৩, (সাদুল্যাপুর-পলাশবাড়ী) আসনের সংসদ সদস্য ডাঃ মোঃ ইউনুস আলী সরকার। zakir pc

উল্লেখ্য, গত বছরের মার্চ মাসে মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের সভায় সাদুল্যাপুর শহরের উত্তরপাড়স্থ মৃত কুশিরাম রবি দাসের স্ত্রী রাজকুমারী রবিদাস ফুলমতিকে বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়েছে সরকার। জীবনের শেষ সময়ে এসে রাষ্টীয় মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি ও বসতঘর সহ, গাভী ও নগদ টাকা পেয়ে রাজকুমারী রবিদাস ফুলমতি বেশ আনন্দিত। মায়ের থাকার ঘর হওয়ায় ছেলে-মেয়েসহ তার পরিবারের লোকজনও মহাখুশি। এছাড়া সে সরকারীভাবে প্রতি মাসে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা পাচ্ছেন।

Related posts